ব্যবসা যখন বাঁশ!

প্রকাশিত: ১:৩৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৮, ২০১৭

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি ::  বাঁশ আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষ। ঘর বাড়ি তৈরি থেকে জ্বালানী লাকড়িতে বাঁশ ব্যবহার হয়।

ফেঞ্চুগঞ্জ ঐতিহ্যবাহী ডাকবাংলোতে যুগ যুগ ধরে চলে আসছে বাঁশের ব্যবসা। বিভিন্ন জাতের হাজার হাজার বাঁশের মওজুদ নিয়ে বসেন ব্যবসায়ীরা।
প্রকার ভেদে দাম ও ভিন্ন। সরেজমিনে দেখা যায়, এখানে একেক জন মহাজনের ২০/৫০ হাজার বাঁশ মওজুদ আছে। খোলা মাঠে থাকায় ক্রেতারা ও ইচ্ছা মত পছন্দ করে নিতে পারেন।
মহাজনরা জানান, এখানে মুলি বাঁশ, বরুয়া বাঁশ, জাইবাঁশ, ঢুলা বাঁশ, বেতুবাঁশ, কালি বাঁশ, সহ নানা জাতের বাঁশ পাওয়া যায়। জাত ও প্রকারভেদে দাম ও আলাদা।

উজান থেকে আসা কয়েক জন ক্রেতা বলেন, নদী ভাঙ্গনের ‘আড়’ দিতে তারা বাঁশ নিতে এসেছি। বাঁশের মধ্য বরুয়ার দাম বেশি এটি খুবই  মজবুদ সহজে পচে না ‘আড়’ সহ যে কোন কাজে এটি নির্ভরযোগ্য। একেকটা বরুয়া বাঁশের দাম ৩৫০ থেকে ৬০০ টাকা।

মহাজন বলেন, বাঁশের প্রচুর চাহিদা, বাড়ি ঘর, নদী খালের আড়, বেড়া, সড়কের আড়, দালান সাটারিং সহ বিভিন্ন কাজে লোক জন এখান থেকে বাঁশ নেন।
এ বাঁশগুলো জুড়ি বন, মাইজগাও, ভাটেরা, শ্রীমঙ্গল,  চিটাগাং, রাঙ্গামাটি থেকেও আসে। নদী পথেই পরিবহন বেশি হয় সময় লাগলেও খরচ বাচে।
তারা বলেন, এ নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য ব্যবসার জন্য ডাকবাংলো কর্তৃপক্ষ বড় পরিসরে জায়গা দিলে ক্রেতা বিক্রেতা সবার জন্য ভালো হয়।

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com