সিলেটের কোনো ল্যাবেই নেই নাদেলের করোনার তথ্য

প্রকাশিত: ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ, মে ২৩, ২০২০

সিলেটের কোনো ল্যাবেই নেই নাদেলের করোনার তথ্য

স্টাফ রিপোর্ট

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। শুক্রবার বিকেলে হঠাৎই নাদেলের করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হয়। গণমাধ্যমকে তিনি নিজেই নিশ্চিত করেন বিষয়টি। তবে নাদেলের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কোনো তথ্যই নেই করোনাভাইরাস শনাক্তে সিলেটে স্থাপিত দুটো ল্যাবের কোনোটিতেই। সিলেটের করোনা পরিস্থিতি বিশ্লেষণে তিনদিনের তথ্য পর্যালোচনা করতে গেলে বিষয়টি নজরে পড়ে।

শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল গণমাধ্যমকে জানান, জ্বর অনুভব হওয়ায় বুধবার তিনি করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে জানানো হয় তিনি করোনা পজেটিভ অর্থাৎ তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এরপর থেকে তিনি বাসায় আইসোলেশনে আছেন এবং সুস্থ আছেন। যেহেতু নাদেল নিজেই তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন সেহেতু তালিকায় তার নাম না থাকা প্রশ্নেরই জন্ম দিয়েছে। তবে কি করোনাভাইরাসের তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সমন্বয়ের ঘাটতি রয়েছে এমন প্রশ্নও সামনে এসেছে।

সিলেট বিভাগের বাসিন্দাদের করোনাভাইরাস শনাক্তে সিলেটে দুটো (পলিমারেজ চেইন রিঅ্যাকশন) ল্যাব থেকে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এর মধ্যে ৭ এপ্রিল থেকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে প্রথম নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়। আক্রান্ত বাড়তে থাকায় পরবর্তীতে মঙ্গলবার থেকে নমুনা পরীক্ষা শুরু হয় শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপিত পিসিআর ল্যাবে। জানা গেছে, বুধবার ওসমানী মেডিকেল কলেজের করোনা ল্যাবে শনাক্ত হন ২২ জন, বৃহস্পতিবার শনাক্ত হন ১২ জন এবং শুক্রবার শনাক্ত হন ৪০ জন। এই তিনদিনে ৮৪ জনের করোনা আক্রান্ত হওয়াদের তালিকা পর্যবেক্ষণ করে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের নাম তালিকায় পাওয়া যায়নি। এছাড়া গত দুইদিনে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে যাদের করোনা শনাক্ত হয়েছে সেই তালিকায়ও নেই নাদেলের নাম। ফলে নাদেলের করোনা আক্রান্ত হওয়া নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান বলেন, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে শুনেছি। তবে আমি বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারব না। কারণ আমার কাছে যেসব তালিকা এসেছে সেটিতে তার নাম নেই। তবে আক্রান্ত হয়ে থাকলে পরবর্তীতে নাম সংযুক্ত হতে পারে বলে জানান তিনি।
এ বিষয়ে ওসমানী হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়ের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

সুত্রঃএকাত্তরের কথা    

আর্কাইভ

August 2020
S M T W T F S
« Jul    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com