নিউইয়র্কে ৮০ ভাগ করোনা রোগী ভেন্টিলেটর লাগানোর পর মারা যাচ্ছেন

প্রকাশিত: ৫:৩৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০২০

নিউইয়র্কে ৮০ ভাগ করোনা রোগী ভেন্টিলেটর লাগানোর পর মারা যাচ্ছেন

বিশ্বের রাজধানী খ্যাত নিউইয়র্ক নগরীতে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৫৯ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে সাড়ে ৮ হাজারেও বেশি মানুষের।

গত এক মাসের চিত্র বলে দেয় প্রায় ৮৬ লাখেরও বেশি মানুষের বসবাস নিউইয়র্ক রাজ্যের দেশটির অর্ধেক মানুষ মারা গেছেন এই নগরীতে। আজ বৃহস্পতিবার একদিনে রেকর্ড ৭৯৯জন মারা গেছেন করোনার কারণে। আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৮ হাজার ৭৬৭ জন রোগী।

প্রতি মুহূর্তে মৃত্যুপুরী নিউইয়র্কে চিকিৎসা সামগ্রীর অভাব থাকায় মৃত্যুর সংখ্যা হুঁহুঁ করে বাড়ছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যে সংকটাপন্ন রোগীর চিকিৎসায় হাসপাতালে ভেন্টিলেটর পর্যাপ্ত না থাকায় মারা যাচ্ছেন বেশিরভাগ মানুষ। খবর-এপি

এপি’র ওই প্রতিবেদন বলা হয়েছে, নিউইয়র্ক সিটি স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে করোনায় আক্রান্ত যেসব রোগীরা বেঁচে থাকার সম্ভবনা কম তাঁদের ৮০ শতাংশই ভেন্টিলেটরে লাগানোর পর মারা যাচ্ছেন।

হাসপাতালগুলোতে কিছু চিকিৎসক রোগীদের বাঁচানোর জন্য ভেন্টিলেটর লাগানোর পর দেখেন যে বেশিরভাগ মারা যাচ্ছেন বিভিন্ন রোগের কারণে।

এপি’র প্রতিবেদনে আরও বলা হয় ভেন্টিলেটর লাগানোর পর রোগীর মৃত্যুর সংখ্যা যুক্তরাজ্য, চীন এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য রাজ্যগুলো থেকেও বেশি।

এমন ভূতুড়ে পরিস্থিতির কারণে মৃত্যু হার বেশি হওয়ায় আগামীতে ভেন্টিলেটের রোগীদের জীবন বাঁচনো খারাপের দিকে যাবে বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকরা।

ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির ক্রিটিক্যাল কেয়ার স্পেশালিস্ট ডাঃ টিফেনি বলেন, যেসব রোগীদের ইতোমধ্যে ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্থ তাঁদের ভেন্টিলেটর লাগানোর পর অবস্থা আরও খারাপের দিক যায়। ভেন্টিলেটর নিজেই ফুসফুসের টিস্যুকে নষ্ট করে ফেলায় রোগী আর বাঁচতে পারেন না।

পালমোনারি ক্রিটিক্যাল কেয়ারের ডাঃ নেগিন হাজিজাদেও এনপিআরকে ডাঃ বলেছেন, ভেন্টিলেটর নিউমোনিয়ার মতো রোগীদের জন্য ভালভাবে কাজ করেছে তবে করোনভাইরাস রোগীদের জন্য সেটা কাজ করছে না।

তিনি আরও বলেন, তাঁর হাসপাতালের বেশিরভাগ করোনভাইরাস রোগী যাদের ভেন্টিলেটর লাগানো হয়েছিল তাদের আরোগ্য হয় নি।

ডাঃ হাজিজাদেও যোগ করেন যে, করোনাভাইরাস ফ্লুর মতো অনেক বেশি ক্ষতি করে। যার কারনে “সেখানে তরল এবং অন্যান্য বিষাক্ত রাসায়নিক সাইটোকাইন রয়েছে যেটি ফুসফুসের টিস্যু জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে।”

এদিকে নিউইয়র্ক রাজ্যের স্বাস্থ্য কমিশনার ডাঃ হাওয়ার্ড জুকার বুধবার বলেছেন, রোগীদের ভেন্টিলেটর ব্যবহারের আগে আমরা অন্য উপায় খুঁজার চেষ্টা করেছি তবে এটি ছিল “সব পরীক্ষামূলক”।

আর্কাইভ

মে ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« এপ্রিল    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com