চলো মহারাণী

প্রকাশিত: ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৪, ২০২০

চলো মহারাণী

চলো মহারাণী ঃ সৈয়দ আজবি

চলো একসাথে হাঁটি বহুদূর
দূর থেকে দূরে আরো দূরে ,
যেখানে আকাশ ছুঁয়েছে চারুলতা ,
মানুষ ছুঁয়েছে মানুষ
সেখানে দোষারপ করা কেবলি পাপ
এখনই তো সবে সন্ধ্যা হলো ,
আলো এসে মিশে গেলো
অন্ধের অন্ধকারে ।
এসোনা ! মনের নীল নদে
সন্ধ্যাপ্রদীপ জ্বালাই
এই আলোর আলোচনায়
জোড়ালো হয়ে উঠুক আমাদের ভালোবাসা ।
আবার কতোকাল পরে একসাথে
মুখোমুখি হবে আমাদের প্রিয় দুটি মুখ ।
এরথেকে কি ভালো নয় ,
আগামীর চেয়ে আজকের এই সমাবেশ ?
রাতের রজনীগন্ধায় যদি আর কখনও এরকম প্রস্তাব না উঠে , তবে –
কি করে স্বান্তনা দেবে নিজেকে ?
এসো , আমরা দুজনে একই অন্তরের ছায়াতলে মিলেমিশে এক হই ।
একসাথে সুর তুলি হৃদয়ের ডাকে ,
নতুন সূর্য দেখি সত্যের আঁচলে ।
সেঁকেলে সকাল আর
যদি না আসে কখনও !
এসোনা ; আজকের সন্ধ্যায়-
ভালোবাসার থার্মোমিটারে
জ্বর উঠিয়ে নিয়ে
আত্মায় আগুন লাগিয়ে দেই ।
সেই আগুনে পুড়ে যাক
পৃথিবীর সব যাপিত জঞ্জাল ,
অপ্রিয় কিছু অতীত ,
অভাব, অসুস্থতা, ভয় আর
সব পাপের বনেদি আশকারা ।

চলো, একসাথে হাঁটি বহুদূর
ইতিহাস থেকে ইতিহাসে
চলোনা; একসাথে হাঁটি বহুদূর
শেকড় থেকে সূর্যে
চলোনা; একসাথে হাটি বহুদূর –
ভালোবাসা থেকে বিজয়ী মৃত্যুতে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com