অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে গেলেন বিদেশি, করোনা সন্দেহে আতঙ্ক, হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত: ৯:৪৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২০

অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে গেলেন বিদেশি, করোনা সন্দেহে আতঙ্ক, হাসপাতালে ভর্তি

শনিবার বিকেলে সিলেট নগরীর মীরবক্সটুলা এলাকায় হঠাৎ জ্ঞান হারিয়ে রাস্তায় পড়ে যান মার্কু (৪৫) নামে ফিনল্যান্ডের এক নাগরিক। আচমকা এমন ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। করোনাভাইরাস আক্রান্ত হতে পারেন এমন সন্দেহে ওই বিদেশির কাছে ঘেঁষছিলেন না কেউ।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তবে পুলিশও ভয়ে ওই বিদেশির পাশে যায়নি। এরপর ঘটনাস্থলে আসে অ্যাম্বুলেন্স। তবে অ্যাম্বুলেন্সে কারা রোগীকে তুলবেন এ নিয়ে দেখা দেয় বিপত্তি। পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী- কেউই এই রোগীর কাছে যেতে রাজি নন। অপরদিকে, অ্যাম্বুলেন্সের সাথে আসেন মাত্র একজন লোক। রোগীকে স্ট্রেচার তোলার জন্য আরেকজনের সাহায্য প্রয়োজন তার। এ অবস্থায় পুলিশ-জনতা একে অপরকে ধাক্কাধাক্কি করতে থাকেন। এভাবে কিছুক্ষণ যাওয়ার পর স্থানীয় একজনের সহযোগিতায় তাকে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ওই বিদেশিকে বর্তমানে নগরীর শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের পর সিলেটে এই হাসপাতালেই আইসোলেশন ইউনিট চালু করা হয়েছে। কভিড-১৯ এর সন্দেহভাজন রোগীদের এখানে চিকিৎসা চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মার্কু গত দেড় মাস ধরে সিলেটে অবস্থান করছিলেন। নগরীর হাওয়াপাড়া এলাকার হোটেল নাজালের ৩০ নম্বর রুম ভাড়া নিয়ে থাকতেন তিনি। তিনি কোনো অসুখে ভুগছিলেন কি না তা জানা যায়নি।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আজ বিকালে মার্কু (৪৫) নামে ফিনল্যান্ডের এক নাগরিককে মীরবক্সটুলা এলাকার খায়রুন ভবনের পাশে পড়েছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে একটি অ্যাম্বুলেন্স গিয়ে তাকে সিলেট শহীদ ডা. শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তিনি বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জেদান বলেন, মার্ক অজ্ঞান হওয়ার পর আশপাশের মানুষদের মধ্যে করোনাভাইরাস আতঙ্ক দেখা দেয়। আক্রান্ত সন্দেহে এলাকাবাসী বা প্রত্যক্ষদর্শীরা কেউই তাকে মাটি থেকে উঠাতে সাহস পায়নি। স্বাভাবিক কারণে পুলিশ সদস্যদের মধ্যও আতঙ্ক কাজ করছিলো।

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com