এস রীনা দেবীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

প্রকাশিত: ৯:৩৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২০

এস রীনা দেবীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

সিলেটের সমাজ ও মানবাধিকার কর্মী এস রীনা দেবীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা অপহরণ মামলা প্রত্যাহার এবং অভিযোগকারীর বিরুদ্ধে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

রোববার (১২ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় সিলেট নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সুশীল সমাজ এবং মানবাধিকার সংগঠনের কর্মীদের অংশগ্রহণে সিলেটের সুধীসমাজের আয়োজনে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচিতে মনিপুরী যুব সমিতির সভাপতি ধীরেন সিংহের সভাপতিত্বে মানবাধিকার কর্মী সমেন্দ্র সিংহের পরিচালনায় বক্তব্য দেন সুশাসনের নাগরিক (সুজন) সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, ব্লাস্টের কোঅরডিনেটর এডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, বাংলাদেশ মনিপুরী সাহিত্য সংসদের সভাপতি কবি একে শেরাম, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক তাহমিনা ইসলাম, এসপিএসের সাবেক সভাপতি আব্দুল মোনায়েম, বর্তমান সভাপতি ফরিদ আহমদ, বাংলাদেশ দলিত জনগোষ্ঠী অধিকার আন্দোলনের উপদেষ্টা লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক লাবলু বড়ুয়া, মানবাধিকার কর্মী লক্ষ্মীকান্ত সিংহ।

বক্তারা বলেন, সিলেটের একজন প্রবীণ ৭২ বছরের নারীকে অপহরণ মামলার আসামি করা হয়েছে। প্রবীণ বয়সে জামালপুরের গিয়ে অপহরণ করা কিংবা এর সঙ্গে যোগসাজশ হওয়ার কোনো কথা নয়। অভিযুক্ত এস রীনা দেবী একজন প্রবীণ সমাজকর্মী ও মানবাধিকার কর্মী। কিন্তু তার বিরুদ্ধেই মিথ্যা অভিযোগ করে হয়রানির চেষ্টা করা হচ্ছে। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক। উদ্দেশ্যমূলক ভাবে একদল ভূমিদস্যু চক্র এর আগেও সমাজ ও মানবাধিকার কর্মী এস রীনা দেবীর নামে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। আমরা এতে ক্ষুব্ধ এবং হতবাক।

বক্তারা বলেন, এস রীনা দেবীর মৌরসি সম্পত্তি একটা অংশ ইতিমধ্যে স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমি দস্যুদের মাধ্যমে বেদখল হয়েছে। যেটুকু আছে সেটুকুও বেদখল করার অপতৎপরতা চালাচ্ছে ভূমিদস্যু চক্রটি। এ জন্য ভুয়া দলিল তৈরি, বিভিন্ন ভাবে হুমকিসহ সিটি করপোরেশনের সেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করে প্রায় ২০ বছর ধরে হয়রানি করে আসছে। ২০১১ সালেও রীনা দেবীসহ পরিবারের সদস্যদের অপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সংক্রান্ত একাধিক মামলা আদালতে চলমান রয়েছে। এরই অপতৎপরতার অংশ হিসেবে গত ২৫ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার শেখ নূর মিয়া নামের এক ব্যক্তি জামালপুর আদালতে তার ভাই অপহরণের মামলা দায়ের করেন। মামলায় রীনা দেবীকে তিন নম্বর আসামি করা হয়েছে। যাতে অভিযোগ করা হয়েছে নূর মিয়ার ভাই আব্দুল আহাদকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছে। মামলাটি বর্তমানে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ তদন্ত করছে। মামলার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামী ১৫ জানুয়ারি জামালপুর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে এস রীনা দেবীকে উপস্থিত হওয়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

বক্তারা মামলাটির নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে এবং মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করা ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচিতে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য দেন সিলেট বিভাগীয় ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মামুন হাসান, সাধারণ সম্পাদক শংকর দাস, টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন সিলেটের সভাপতি দিগেন সিংহ, বাংলাদেশ মানবাধিকার সাংবাদিক কমিশনের কোষাধ্যক্ষ ইউসুফ আলী।

আর্কাইভ

জানুয়ারি ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ডিসেম্বর    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com