লুকিয়ে রেখেও সিলেটের কমলা খেতে পারেননি রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২০

লুকিয়ে রেখেও সিলেটের কমলা খেতে পারেননি রাষ্ট্রপতি

ছেলেবেলায় কমলা খুব প্রিয় ছিলো রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের। কিন্তু মধ্যবিত্ত একান্নবর্তী পরিবারে খুব বেশি কমলা খাওয়ার সুযোগ ছিলো না। এনিয়ে আফসোস ছিলো তাদের ভাইবোনের। একবার ভাইবোনদের ফাঁকি দিয়ে একা খাওয়ার জন্য অনেকগুলো কমলা লুকিয়ে রেখেছিলেন। তবে সেগুলো আর খাওয়া হয়নি তাঁর।

বুধবার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে এসে সেই গল্পই শোনান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সমাবর্তনে সভাপতির লিখিত বক্তব্যের পর রাষ্ট্রপতি বলেন, ছেলেবেলায় বাড়িতে কমলা এলে আমরা বড়জোর ১/২টা পেতাম। একবার আমার ছোটবোন কমলা খাওয়ার জন্য একটা বুদ্ধি বের করলো। সে বললো- ‘আমার যদি জ্বর হয়, তবে সবাই কমলা নিয়ে আসবে। তখন অনেক কমলা খেতে পারবো।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, সত্যি সত্যিই সপ্তাহখানেক পরে তার জ্বর হলো। এবং এই সময়েই কাকতালীয়ভাবে আমাদের বাড়ির পাশের হাওর দিয়ে যাওয়া একটি কমলাবাহী নৌকা ডুবে যায়। নৌকাটি সিলেট থেকে কমলা নিয়ে যাচ্ছিলো। তখন ক্লাস থ্রি/ফোরে পড়তাম। কিন্তু সাঁতার জানতাম। নৌকা ডুবার পর আমরা ভাইবোনেরা ঝাঁপিয়ে পড়লাম হাওরে। এরপর ভেসে যাওয়া কমলাগুলো সংগ্রহ করে এনে মালিককে ফিরিয়ে দিলাম। তখন ওই লোকটি খুশি হয়ে আমাদের অনেকগুলো কমলা উপহার দেয়। এরপর সেগুলো বাড়িতে এনে আমরা ভাইবোনেরা ভাগ করে খাই। তবে এরমধ্যে ২০/২৫টি কমলা একা খাওয়ার জন্য আমি লুকিয়ে রেখেছিলাম।

রাষ্ট্রপতি বলেন, তবে ওই কমলাগুলো আমি খেতে পারিনি। কারণ সপ্তাহখানেক পর লুকিয়ে রাখা জায়গায় গিয়ে দেখি সবগুলো কমলা পচে গেছে।

এই গল্প শুনিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, এখন আমরা কী দেখতে পাই। এখন চায়না থেকে যে কমলা আসে তা মাসের পর মাস রাখলেও পচন ধরে না। অথচ সিলেটের কমলা একসপ্তাহ রাখা যায় না। এখনকার কমলায় পচন ধরে না কারণ এগুলোতে ফরমালিন মেশানো হয়। যারা ফরমালিন মেশায় তারা তিলে তিলে মানুষকে হত্যা করছে। তারা গণহত্যাকারী। তাদের বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার হতে হবে।

প্রায় এক যুগ পরে হওয়া শাবিপ্রবির এই ৩য় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তার বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, কথাসাহিত্যিক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম। শাবিপ্রবির রেজিস্টার ইশফাকুল আলমের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ।

আর্কাইভ

জানুয়ারি ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ডিসেম্বর    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com