শিক্ষার্থীদের মেধা ও শ্রমে গড়ে উঠবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা: সিলেটে রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত: ৫:০৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২০

শিক্ষার্থীদের মেধা ও শ্রমে গড়ে উঠবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা: সিলেটে রাষ্ট্রপতি

স্টাফ রিপোর্ট:
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) তৃতীয় সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন,শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে সনদ অর্জন করলে হবে না সবাই কে জাতীয় ভাবে অগ্রণীভুমিকা পালন করতে হবে। আজকের শিক্ষার্থীদের, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মুক্ত দেশ গড়তে ছাত্রসমাজকে কাজ করতে হবে। এজন্য শিক্ষার্থীদের জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে জানতে হবে। শিক্ষার্থীদের মেধা ও শ্রমে গড়ে উঠবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ।তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকলকে দেশের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানের গড়ে তোলার আহবান জানান। রাষ্ট্রপতি বলেন পৃথিবীর সকল রাষ্ট্রই এখন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে নিজেদের শক্ত ভিত্তি গড়ে তুলছে। তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর নতুন এই বিশ্ব ব্যবস্থায় প্রযুক্তিগত যেকোন অসামর্থ্যই দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। বাংলাদেশকেও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে স্বনির্ভরতা অর্জন করতে হবে। এরজন্য প্রয়োজন সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে নিরন্তর গবেষণা। নিত্যনতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও তার প্রসারের ওপরই নির্ভর করে দেশের সমৃদ্ধি। তিনি বুধবার বিকালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তনে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন পৃথিবীর বুকে বুকে শান্তিপূর্ণ উন্ননয়শীল একটি দেশ। দারিদ্র নিরসনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নে বহির্বিশ্বে দেশটি এখন রোল মডেল। বিশ্বে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। বর্তমানে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ৮ শতাংশের ওপরে। অর্থনীতিবিদদের ধারণা ২০২৪ সাল নাগাদ এই হার হবে ১০ শতাংশের উপরে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সময় এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাওয়া। সময় এখন বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার, পথ চলবার। বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ও অগ্রযাত্রায় নারী-পুরুণ নির্বিশেষে দেশের সর্বস্তরের মানুষের অবদান খুবই প্রশংসনীয়।
এ দেশের দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, পরিশ্রমী, উদ্যমী, লড়াকু ও সংবেদনশীল জনগণের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ উন্নয়ন ও অগ্রগতির কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জনে সফল হবে । গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি বলেন, যে-কোনো দেশের উন্নয়ন ও ইতিবাচক পরিবর্তনে তরুণ সমাজ-ই মূল চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করে থাকে। আমাদের দেশও তার ব্যতিক্রম নয়। সুতরাং আজ তোমরা যারা গ্র্যাজুয়েট হলে, আমার সামনে এই যে তরুণ, তোমরা এক-একটি আলোর প্রদীপ, তোমাদের সকলকে দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় এগিয়ে আসতে হবে। নিতে হবে দেশ ও জাতির দায়ভার। আমি মনে করি তোমাদের মেধা ও শ্রমেই গড়ে উঠবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা। বিশ্ববিদ্যালয়ে কঠোর জ্ঞানতপস্যা ও শৃঙ্খলার মাধ্যমে তোমরা ডিগ্রি অর্জন করেছো। তোমরা ভাল করেই জানো তোমাদের বিদ্যালাভ ও সত্যিকার মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার পেছনে যারা শক্তি, সাহস ও অর্থ জুগিয়েছেন তাঁরা হচ্ছেন এ দেশের জনগণ। তাই বাংলাদেশের জনগণের প্রতি জীবনব্যাপী তোমাদের দায়িত্বশীল ভূমিকা জাতি প্রত্যাশা করে। এর আগে গতকাল বুধবার (৮ জানুয়ারি) বেলা ৩টায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) তৃতীয় সমাবর্তনের শুভ উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সমাবর্তনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানাতে বর্ণিল আলোকসজ্জায় সাজানো হয় পুরো ক্যাম্পাস। এর আগে দুপুরে সিলেটে পৌঁছে তিনি হযরত শাহজালাল (রহ:) ও শাহজালাল (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করেন। পরে তিনি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

আর্কাইভ

জানুয়ারি ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« ডিসেম্বর    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com