মার খেলাম, হাসপাতালে গেলাম, আবার মামলাও খেলাম

প্রকাশিত: ৮:৩৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৯

মার খেলাম, হাসপাতালে গেলাম, আবার মামলাও খেলাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরসহ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ও তাদের নামে দায়ের মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পদযাত্রা করেছে ১২টি সংগঠনের জোট সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য।

পদযাত্রার আগে এক সমাবেশে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ খাঁন বলেন, ‘বারবার আমাদের ওপর হামলা হচ্ছে, কিন্তু একটিরও বিচার পাইনি। তাই সন্ত্রাসীরা তাদের কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখেছে। ডাকসুতে আমাদের ওপর হামলার নেতৃত্ব দিয়েছে সনজিত এবং সাদ্দাম। তাদের এখনো আইনের আওতায় আনা হয়নি। আমাদের অভিযোগ সম্পর্কে পুলিশ এখনো কোনো আপডেট দেয়নি। একদিকে মার খেয়েছি, হাসপাতালে গিয়েছি, আইসিউতে গিয়েছি আবার আমাদের নামে মামলা করা হয়েছে’।

শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এ সমাবেশ শেষে পদযাত্রা শুরু করে জোটের নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, ছাত্রলীগ ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে। দেশের স্বার্থে কথা বলায় আমাদের ভাই আবরারকে হত্যা করেছে ভারতের দালালরা। সন্ত্রাসের দখলকে আমরা ভেঙে চুরমার করে দেব।

তিনি বলেন, ‘ডাকসু ভবনে আমাদের ওপর হামলা করা হলো। এখনো অনেকে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। আমরা দেখছি এই হামলার শিকার হওয়াদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হলো। প্রসাশনকে হুঁশিয়ার করে বলতে চাই, দ্রুত তাদের বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে ছাত্রলীগ নেতাদের আইনের আওতায় আনতে হবে’।

ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি মেহেদি হাসান নোবেল বলেন, ‘হাজারো স্বপ্ন নিয়ে একজন ছাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ছাত্রদের স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে না। এখান থেকে লাশ হয়ে ফিরতে হচ্ছে তাদের। বিশ্ববিদ্যালয় এখন মৃত্যু কারখানায় পরিণত। মৃত্যু কারখানার কারিগর ছাত্রলীগ, ছাত্রদল ও ছাত্র শিবির। এই সন্ত্রাসীদের সাবধান করে বলতে চাই, এভাবে আর চলতে দেওয়া হবে না। যেখানে সন্ত্রাস দেখা যাবে সেখানে সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করবে’।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন স্বতন্ত্র জোটের নেত্রী ও শামসুন্নাহার হল সংসদের ভিপি শেখ তাসনিম আফরোজ ইমি, বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের আতিফ অনিক, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা প্রমুখ। সমাবেশ শেষে পদযাত্রাটি রাজু ভাস্কর্য থেকে কলাভবন, মধুর ক্যান্টিন, ফুলার রোড, নীলক্ষেত, কাঁটাবন, শাহবাগ হয়ে আবার রাজু ভাস্কর্যে এসে শেষ হয়।

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জানুয়ারি    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com