রেল দুর্ঘটনা : উদ্ধার কাজে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস

প্রকাশিত: ১:১২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৯

রেল দুর্ঘটনা : উদ্ধার কাজে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ নামক স্থানে দুটি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় ১৬ জন নিহত এবং ৭৪ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস এই মুহূর্তে ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ করছে।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) রাত ৩টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনার পর চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের রেলযোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন বলেন, দুটি ক্রেন দিয়ে উদ্ধার কাজ চলছে। এরমধ্যে ঘটনাস্থলে থাকা কোচগুলোকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। আর একটি কোচ বাকি আছে। এই কোচটি উদ্ধার করা হলে ঘণ্টা খানেকের মধ্যে রেল লাইন সচল হয়ে যাবে।

কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ উল আলম জানান, মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনে সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তুর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষ হয়। দুটি ট্রেনের কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সর্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক তানহারুল ইসলাম বলেন, ‘নিহতদের ভেতরে ৯ জনের মরদেহ স্পটে পাওয়া গেছে। এছাড়া তিনজন কসবা মেডিকেল হাসপাতালে, দুই জন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে এবং একজন কুমিল্লা মেডিকেল মারা যান।

সোমবার রাত ৩টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা আর সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষে কয়েকটি বগি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ১৬ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার (১১ নভেম্বর) ভোর পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও তূর্ণা নিশীথার মধ্যে এই দুর্ঘটনা ঘটে। উদয়ন এক্সপ্রেস সিলেট থেকে চট্টগ্রাম ও তূর্ণা নিশীথা চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা অভিমুখে ছিল। মন্দভাগ রেল স্টেশনের কাছে ট্রেন দুটির মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। এতে দুটি ট্রেনেরই বেশ কয়েকটি করে বগি দুমড়ে মুচড়ে যায়।

আর্কাইভ

জুলাই ২০২০
রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
« জুন    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com