এফআর টাওয়ারের ফারুকসহ তিনজনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

প্রকাশিত: ৮:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯

এফআর টাওয়ারের ফারুকসহ তিনজনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

নকশা জালিয়াতির মামলায় বনানীর এফআর টাওয়ারের অন্যতম মালিক এসএমএইচআই ফারুকসহ তিন আসামির জামিন বাতিল করেছেন হাইকোর্ট। আদেশের অনুলিপি পাওয়ার সাতদিনের মধ্যে তাদের বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।

অপর দুই আসামি হলেন- রাজউকের সাবেক ইমারত পরিদর্শক আওরঙ্গজেব সিদ্দিকী (নান্নু) ও শওকত আলী।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনে মঙ্গলবার বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না।

খুরশীদ আলম সাংবাদিকদের বলেন, বনানীর এফআর টাওয়ার সংক্রান্ত দুদকের মামলায় এই তিন আসামির সঙ্গে অপর মালিক বিএনপি নেতা তাসভীর উল ইসলামের জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করা হয়। আদালত তাসভীরের জামিন বাতিলের আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন। বাকিদের জামিন কেন বাতিল করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারির পাশাপাশি তাদের জামিন বাতিলে অন্তর্বর্তী আদেশ দেন। আদেশের অনুলিপি পাওয়ার সাতদিনের মধ্যে বিচারিক আদালতে তাদের আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।

মামলাটিতে ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে বলে জানান দুদকের এই আইনজীবী।

আসামিরা গত ১৯ আগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ভিন্ন দিনে ঢাকার মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত থেকে জামিন নেন।

গত ২৮ মার্চ এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৭ নিহত হওয়ার পর এই ভবন নির্মাণে নানা অনিয়মের বিষয়গুলো বেরিয়ে আসতে থাকে। কামাল আতাতুর্ক এভিনিউয়ে এফআর টাওয়ারের জমির মূল মালিক ছিলেন প্রকৌশলী এসএমএইচআই ফারুক।

অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে ভবনটি নির্মাণ করে রূপায়ন হাউজিং এস্টেট লিমিটেড। সে কারণে সংক্ষেপে ভবনের নাম হয় এফআর টাওয়ার।

নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে ভবনটিতে কয়েকটি তলা বাড়ানোর অভিযোগে গত ২৫ জুন বিএনপি নেতা তাসভীরসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেন দুদক কর্মকর্তা মো. আবুবকর সিদ্দিক। একটি মামলায় রাজউকের ভুয়া ছাড়পত্রের মাধ্যমে এফআর টাওয়ারকে ১৯তলা থেকে বাড়িয়ে ২৩তলা করা, উপরের ফ্লোরগুলো বন্ধক দেয়া ও বিক্রি করার অভিযোগে ২০ জনকে আসামি করা হয়।

অপর মামলাটি করা হয় এফআর টাওয়ারের ১৫তলা পর্যন্ত নির্মাণের ক্ষেত্রে ইমারত বিধিমালা লঙ্ঘন এবং নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে ১৮তলা পর্যন্ত বাড়ানোর অভিযোগে। ফারুক ও নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের মালিক রূপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুল দুই মামলারই আসামি।

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com