‘অবহেলা আর নিতে পারছি না’- খাতায় লিখে শাবি শিক্ষার্থীর ‘আত্মহত্যা’

প্রকাশিত: ৮:২৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৯

‘অবহেলা আর নিতে পারছি না’- খাতায় লিখে শাবি শিক্ষার্থীর ‘আত্মহত্যা’

ইঁদুর মারার বিষ পান করে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

মারা যাওয়া শিক্ষার্থী বকুল দাশ রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তারের বরাত দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জহীর উদ্দিন আহমেদ বলেন, “বৃহস্পতিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়েছে।”

তিনি বলেন, ” বুধবার রাত দেড়টার দিকে বকুলের রুমমেট আমাকে ফোন দিয়ে তার ফুড পয়জনিং হচ্ছে বলে জানায়। তখন তার বমি হচ্ছিল। আমরা অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে তাকে হাসপাতালে পাঠাই। তখন দায়িত্বরত ডাক্তার বলেন, দুই আড়াই ঘণ্টা আগে সে ইঁদুরের বিষ পান করেছে।”

তবে সেটা আত্মহত্যা কিনা তা পুলিশ খতিয়ে দেখবে বলে জানান প্রক্টর।

“আমরা পুলিশকে খবর দিয়েছি। তারা হলে বকুলের রুম পরিদর্শন করে গেছেন। পোস্টমর্টেমের পর তারা এ বিষয়ে ক্লিয়ার কিছু বলবেন।”

বকুল শাহপরান হলের বি ব্লকের ১২০ নম্বর রুমে থাকতেন। তার বিছানার নিচ থেকে একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেখানে বকুলের নাম, সাক্ষর কিছু না থাকলেও তার খাতায় হাতের লেখার সাথে সুইসাইড নোটের লেখার মিল রয়েছে।

সুইসাইড নোটে লেখা, ” আমার মৃত্যুর জন্য কোন রুমমেট, বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুরা দায়ী নয়। দুঃখ, কান্না, অবহেলা আমার মস্তিষ্ক আর নিতে পারছিল না। তাই আমি স্বেচ্ছায় মারা গেছি।”

বকুলের গ্রামের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার সোয়াগাঁও গ্রামে। তার বাবার নাম রানু দাশ।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওকিল উদ্দিন বলেন, “আমরা লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। ডাক্তারি রিপোর্ট পেলে বুঝা যাবে আত্মহত্যা কিনা। তার পরিবারের সাথে কথা বলে আইনঅনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

আর্কাইভ

মে ২০২০
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« এপ্রিল    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com