প্রচ্ছদ

দাবি না মানলে বিদ্যালয়ে তালা লাগাবে প্রাথমিকের শিক্ষকরা

প্রকাশিত হয়েছে : ৩:৫৭:২৭,অপরাহ্ন ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | সংবাদটি ১২ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডের দাবিতে আবারও আন্দোলনে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।

দাবি না মানলে ১ অক্টোবর থেকে লাগাতার কর্মসূচি পালন করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

তবে তার আগে রয়েছে আরও তিনটি কর্মসূচি।

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর সারা দেশে উপজেলা পর্যায়ে মানববন্ধন এবং ২৮ সেপ্টেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা করবেন তারা।

এর পরও দাবি না মানলে ১ অক্টোবর থেকে লাগাতার আন্দোলনে নামবেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সদস্যরা।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক।

এ সময় লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম বলেন, বর্তমানে একজন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জাতীয় বেতন স্কেলের ১১তম গ্রেডে (১২,৫০০) ও সহকারী শিক্ষক ১৪তম গ্রেডে (১০,২০০) বেতন পান।

২০০৬ সালে বেতন স্কেল আপগ্রেড এবং ২০১৪ সালে বেতন ও পদমর্যাদা বাড়ানোর ঘোষণায় স্কেলের পার্থক্য দাঁড়ায় তিন ধাপ। ২০১৫ সালের ৮ম জাতীয় বেতন স্কেলে এ ব্যবধান দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩০০ টাকা।

এর আগে অর্থ মন্ত্রণালয়ে দেয়া প্রস্তাবটি তারা প্রত্যাখ্যান করেছেন জানিয়ে আবুল কাশেম দাবি করে জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সহকারী শিক্ষকদের জন্য ১১তম গ্রেড ও প্রধান শিক্ষকদের জন্য ১০ম গ্রেডের নতুন প্রস্তাব পাঠানো হোক।

দাবি না মানা পর্যন্ত যেসব কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, এর মধ্যে ১৯ সেপ্টেম্বর সারা দেশে উপজেলা পর্যায়ে বিকাল ৩টা থেকে ১ ঘণ্টা মানববন্ধন করে প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান।

এর পর ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১০টায় মানববন্ধন করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় বরাবর স্মারকলিপি নিয়ে পদযাত্রা করা হবে।

এর পরও দাবি না মানা হলে বা এটি বাস্তবায়নে কোনো উদ্যোগ গ্রহণ না করলে বিদ্যালয়ে তালাসহ লাগাতার কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

সংগঠনের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে শিক্ষকদের মানসম্মত বেতন স্কেল দেয়া হবে বলা হয়েছে। তাই আমাদের এ দাবি ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মানা না হলে স্কুল তালাবদ্ধ কর্মসূচি দিতে বাধ্য হব আমরা। আগামী ১ অক্টোবর থেকে আমাদের লাগাতার কর্মসূচি শুরু হবে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com