প্রচ্ছদ

ফেসবুকের মাধ্যমে শতাধিক নারীর সাথে প্রতারণা, যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত হয়েছে : ৯:১৩:২৭,অপরাহ্ন ০৪ আগস্ট ২০১৯ | সংবাদটি ৩২ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

নারীদের সাথে প্রতারণার দায়ে শাহ জাহাঙ্গীর আলী (৩২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)। ফেসবুকে প্রবাসী ব্যক্তিদের নাম ও ছবি ব্যবহার করে ভুয়া আইডি তৈরি করে নারীদের ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে তার উপর। জাহাঙ্গীর আলী শতাধিক নারীর সাথে প্রতারণার করেছে বলে জানায় সিআইডি।

শনিবার (৩ আগস্ট) মৌলভীবাজারের সরকার বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর এসব তথ্য জানায় পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)।

দীর্ঘ দিন ধরে বিভিন্ন বয়সের নারীরা তার প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে জানান পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)। এসব ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৪/২৫/২৯ ধারায় মামলা রয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত শাহ জাহাঙ্গীর আলী (৩২) সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার ফকিরাবাদ গ্রামের শাহ কলমদর আলী মাস্টারের ছেলে শাহ জাহাঙ্গীর আলী।

সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টার জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর আলী প্রবাসী কোনো ব্যক্তির ফেসবুক আইডি থেকে তথ্য ও ছবি সংগ্রহ করে ভুয়া আইডি তৈরি করতেন। এরপর ওই ভুয়া আইডি দিয়ে ভিকটিমদের বন্ধু তালিকায় যুক্ত হতেন। পরবর্তীতে নিজেকে প্রবাসী পরিচয় দিয়ে ভিকটিমদের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলতেন। কিছুদিন পর ভিকটিমকে পছন্দ হয়েছে জানিয়ে তাকে বিয়ে করার আগ্রহ প্রকাশ করেন জাহাঙ্গীর। অভিভাবকদের দেখানোর কথা বলে ভিকটিমদের কাছ থেকে তার ও তার পরিবারের ছবি সংগ্রহ করতেন তিনি। যেসব ভিকটিমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলতেন, তাদেরকে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে কৌশলে তাদের একান্ত ছবি সংগ্রহ করতেন জাহাঙ্গীর। একান্ত ছবি সংগ্রহ করতে না পারলে স্বাভাবিক ছবিকে এডিট করে অশ্লীল ও নগ্ন ছবি তৈরি করতেন জাহাঙ্গীর আলী।

সাইবার পুলিশ সেন্টার আরো জানায়, ভিকটিমদের সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলার একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর বিয়ে করতে দেশে আসার কথা জানান। নিজের বাবার অসুস্থতা বা অন্য কোনো সমস্যার কথা বলে ভিকটিমের কাছে টাকা চান তিনি। ভিকটিম টাকা দিতে রাজি না হলে তাদের নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি তৈরি করে অশ্লীল ও নগ্ন ছবি প্রকাশ করতেন জাহাঙ্গীর। এসব ছবি ভিকটিমের ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে টাকা দাবি করতেন তিনি। নিজের একাধিক ভুয়া ফেসবুক আইডির মাধ্যমে এসব নগ্ন ছবি প্রকাশ করে ভিকটিমকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার হুমকি দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা আদায় করতেন জাহাঙ্গীর।

সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টার জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর আলীর একাধিক ফেসবুক আইডি থেকে শতাধিক ভিকটিমের একান্ত ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও পাওয়া গেছে। এসব ভিকটিম জাহাঙ্গীরের মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃত জাহাঙ্গীর আলীর কাছ থেকে বেশকিছু সিম কার্ড, একাধিক মোবাইল ফোন এবং একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেটকার ( রেজি নং-১৩-৭২৩৯) জব্দ করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com