ভারতের হারে হতাশ হয়ে যা বললেন শচীন

প্রকাশিত: ২:৫৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৯

ভারতের হারে হতাশ হয়ে যা বললেন শচীন

ম্যানচেস্টারে স্বপ্নভঙ্গ হলো প্রায় ১৫০ কোটি হৃদয়ের। লর্ডসের ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে কাপ তোলা হলো না ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির

বুধবার নিউজ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৮ রানে হেরে বিশ্বকাপ জেতা স্বপ্নের সলিল সমাধি হলো ভারতের।

শিরোপা জয়ের প্রত্যাশী দলের এমন হার কিছুতেই মানতে পারছেন না দলটির সমর্থকরা।

যেখানে শিরোপা জেতা ছিল মূল লক্ষ্য, সেখানে সেমিফাইনাল থেকে বিদায়! দলের এমন ফলে রীতিমতো টিভি ভেঙেছে দলটির সমর্থকদের কেউ কেউ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে কোহলি-ধোনি-শাস্ত্রীদের রীতিমতো ধুয়ে দিচ্ছেন ভারতীয় সমর্থকরা।

দেশটির সাবেক ক্রিকেটার থেকে শুরু করে ধারাভাষ্যকার ও ক্রিকেট বিশ্লেষকরা কোহলি, ধোনিদের তুলাধোনা করছেন বিষবাক্যে।

তবে ভারতের হারের কারণগুলো দেখিয়ে দিয়ে বিশ্লেষণধর্মী কথা বলেছেন ভারতীয় ব্যাটিং লিজেন্ড শচীন টেন্ডুলকার।

অতিরিক্ত টপঅর্ডার নির্ভরতাই ভারতকে ডুবিয়েছে বলে ধারণা এ লিটল মাস্টারের।

এমন হারে যারপরনাই হতাশ শচীন। তিনি বলেন, সত্যিই আমি অন্য সবার মতোই হতাশ। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের জন্য ২৪০ রান তাড়া করে জেতাটা অবশ্যই উচিত ছিল ভারতের।

ম্যানচেস্টারে এটি কোনো কঠিন লক্ষ্য নয় বলে মনে করেন টেন্ডুলকার।

অথচ বৃষ্টি বাগড়ায় রিজার্ভ ডেতে খেলা গতকালের সেমিফাইনালে লো-স্কোরিং ম্যাচেও তল খুঁজে পায়নি ভারতীয় দল।

এমন হারের কারণ খুঁজেছেন এই সাবেক ভারতীয় তারকা।

রোহিত ও কোহলির ওপর ভরসা করে মাঠে নামাই এ হারের কারণ বলে জানান তিনি।

শচীন বলেন, ‘প্রত্যেক ম্যাচে রোহিত ও রাহুলের থেকে ভালো শুরু আশা করা উচিত নয়। রোহিত অথবা বিরাট কোহালির একদিন খারাপ যেতেই পারে। সবসময় ওরাই ম্যাচ শেষ করবে, তা হবে কেন।’

টপঅর্ডার ব্যর্থ হলে মিডলঅর্ডার সেই দায়িত্ব নেবে এটিই তো স্বাভাবিক। কিন্তু গতকালের ম্যাচে তা দেখা যায়নি।

এদিকে ম্যাচকে জয়ের দুয়ারে নিয়ে যেতে না পারায় মহেন্দ্র সিং ধোনিকে দুষছেন ভারতীয় সমর্থকরা।

ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বিকালে মি. ফিনিশারের ভূমিকার সমালোচনা করেছেন কেউ কেউ। কিন্তু এ সময় ধোনির পাশে এসে দাঁড়ালেন একসময়ের সতীর্থ শচীন।

ধোনি প্রসঙ্গেও একই রকম কথা উচ্চারণ করেন শচীন বলেন, ‘ধোনি এসে ম্যাচ শেষ করে দেবে সবসময় এটিও ভাবা ঠিক নয়। সে অনেক করেছে দলের জন্য। এমন অনেক ম্যাচ বের করে এনে দিয়েছে ধোনি। তবে এ দায়িত্ব কেবল ধোনির একার নয়। বাকিদেরও দায়িত্ব নিতে হবে।’

উল্লেখ্য, নিউজিল্যান্ডের ছোড়া ২৪০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৪ রানে মূল্যবান ৪ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে ভারত। এদিন রোহিত, রাহুল ও কোহলির মতো বড় রান সংগ্রাহকরা স্কোরবোর্ডে মাত্র ৩ রান যুক্ত করেন।

আর সেই ব্যর্থতাই ডোবাল ভারতকে।

এদিকে ভারতীয় দলকে সান্ত্বনা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সেমিফাইনাল থেকে ভারতীয় দলের ছিটকে যাওয়ার পর এক টুইটবার্তায় মোদি লেখেন, ‘প্রত্যাশানুযায়ী ফল হয়নি ঠিকই; কিন্তু ভারতের লড়াকু মনোভাব দেখে আমি মুগ্ধ। প্রতিযোগিতাজুড়ে অসাধারণ খেলেছে ভারত। হারজিত তো খেলারই অংশ।’

ভারতীয় দলের প্রশংসা এসেছে রাহুল গান্ধীর পক্ষ থেকেও। তিনি লেখেন, ‘অনেকেই হয়তো হতাশ। কিন্তু বিশ্বকাপে ভারত যেভাবে খেলেছে তার প্রশংসা না করে পারছি না। তবে নিউজ়িল্যান্ডকে অনেক অভিনন্দন।’

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com