প্রচ্ছদ

ইংল্যান্ডের কাছে ইচ্ছে করে হেরেছে ভারত, সরফরাজ কী বলছেন?

প্রকাশিত হয়েছে : ১:০৫:৪৮,অপরাহ্ন ০৯ জুলাই ২০১৯ | সংবাদটি ৯ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

ইংল্যান্ড-ভারত ম্যাচ নিয়ে উঠেছিল সমালোচনার ঝড়। অনেকের মতে, ইংলিশদের বিপক্ষে জয়ের কোনো তাড়না ছিল না বিরাট কোহলিদের। ওই দিন ইচ্ছে করেই স্বাগতিকদের কাছে হারেন তারা!

উদ্দেশ্য ছিল- যেন পাকিস্তান ও বাংলাদেশের বিপদ হয়। শেষ অবধি টিম ইন্ডিয়া হেরে যাওয়ায় ক্ষতি হয় এশিয়ার তিনটি দলেরই। সেমিফাইনালে খেলার আশা নিভে যায় শ্রীলংকারও!

সেই ভারতের বিপক্ষে হেরে সেমি-স্বপ্ন ধূলিসাৎ হয় টাইগারদের। আর তাদের হারিয়ে ১১ পয়েন্ট পেলেও শেষ চারে ওঠা হয়নি পাকিস্তানের। সমান পয়েন্ট নিয়ে নেট রান রেটে এগিয়ে থাকায় সেরা ফোরের টিকিট পায় নিউজিল্যান্ড।

তবু নিজেদের বিদায়ের কারণে ভারতের দোষারোপ করতে নারাজ পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তার মতে, সেমিফাইনালে উঠতে না পারার দায়টা তাদেরই। চিরশত্রুদের দোষ দিয়ে লাভ নেই।

দলের বিদায়ের জন্য পাকিস্তানি সমর্থকরা ভারতকে দুষলেও সরফরাজ বলেছেন ভিন্নকথা। সোমবার প্রচারমাধ্যমকে তিনি বলেন, না, না৷ এটা (ভারতের জন্য বিদায়) ঠিক নয়। এ ধরনের কথা বলা ঠিক নয়। আমার মনে হয় না, আমাদের জন্য ইংল্যান্ডের কাছে হেরেছে টিম ইন্ডিয়া। ওই দ্বৈরথে ভালো খেলেই জিতেছে ইংল্যান্ড। সেখানে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কিছু করার ছিল না।

ভারত হারাতে পারলে লিগপর্বের খেলা শেষে ইংল্যান্ডের পয়েন্ট হতো ১০। ফলে ১ পয়েন্ট বেশি থাকায় সেকেন্ড ফাইনালে নাম লেখাত পাকিস্তান। স্বাভাবিকভাবেই ভারতের মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সমর্থক থেকে শুরু করে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা পর্যন্ত কোহলিদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। এমনকি ভারতীয়সহ বিশ্ব ক্রিকেটের কয়েকজন কিংবদন্তিও তাদের খেলার ধরন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

তবে একমত হতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়ক। সবার সঙ্গেই ভিন্নমত পোষণ করেছেন তিনি। দল যে খুব খারাপ করেছে, সেটিও মানতে চান না। বরং সতীর্থদের লড়াকু কামব্যাকের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সরফরাজ। নেতৃত্বে রাখা হবে কিনা-বিষয়টিও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) ও নির্বাচকদের হাতে ছেড়ে দিয়েছেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।

বিশ্বকাপে প্রথম পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটি জয় পায় পাকিস্তান। পরের চার ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে পঞ্চম স্থানে থেকে দ্বাদশ আসর শেষ করেন তারা।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com