প্রচ্ছদ

ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের আমরণ অনশন, দুইজন হাসপাতালে

প্রকাশিত হয়েছে : ৯:৫৫:৫৫,অপরাহ্ন ৩০ জুন ২০১৯ | সংবাদটি ৩৪ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

ছাত্রলীগের কমিটি থেকে বিতর্কিতদের বাদ দিতে পদবঞ্চিতদের আমরণ অনশনের তৃতীয় দিনে ৯ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় দুইজনকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে নেয়া হয়েছে। রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সেলাইন চলছে আরও সাত জনের।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎসহ ৪ দফা দাবি না মানলে অনশন চালিয়ে যাবার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। টানা এক মাস পাঁচ দিনের অবস্থান কর্মসূচি থেকে শুক্রবার দুপুর ২টা থেকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অনশন শুরু করেন তারা। এর আগে গত ২৬ মে দিবাগত রাত ১টা থেকে অবস্থান চালিয়ে এসেছেন তারা।

রোববার তৃতীয় দিনের অনশনে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন সদ্য বিদায়ী কমিটির কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক উপ-সম্পাদক মুরাদ হায়দার টিপু এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক প্রচার বিষয়ক উপ-সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহ।

যার অসুস্থ হয়ে যেই সাতজনের সেলাইন চলছে তারা হলেন, ইমদাদ হোসেন সোহাগ (সাবেক আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপ-সম্পাদক), খন্দকার রবিউল ইসলাম রবি (সাবেক প্রচার বিষয়ক উপ-সম্পাদক), ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী সজীব (সাবেক পরিবেশ বিষয়ক উপ-সম্পাদক), আনন্দ সাহা পার্থ (সাবেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক সম্পাদক), রানা হামিদ (সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক), এস এম মামুন (সাবেক সহ সম্পাদক) এবং কৃষ্ণ মজুমদার (সাবেক ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক উপ-সম্পাদক)।

এদিকে অনশনের বিষয়ে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী যুগান্তরকে বলেন, এখন পর্যন্ত ১২ জন বিতর্কিতর বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। হয়তো আরও কয়েকজন এমন রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে আমি অত্যন্ত আন্তরিক। সভাপতির সঙ্গে কথা বলে তাদের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত ব্যস্থার দিকে যাব।

অনশনকারীদের বিষয়ে বলেন, তারাতো আমাদের কাছে বিতর্কিতদের নামই দেয়নি। তাহলে এই অনশন কেন? বিতর্কিতদের নাম ও প্রমাণ দিতে গিয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীদের হামালার শিকার হয়েছেন- পদবঞ্চিতদের এমন অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, এই কথা সত্য নয়, তাদের ওপরে কোনো ধরণের হামলা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, আমি অনশনকারীদের কাছে যাব এবং তাদের সঙ্গে কথা বলব। তবে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলতে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তা সম্ভব হয়নি।

অনশনরতদের মুখপাত্র ও ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক রাকিব হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ব্যক্তি স্বার্থে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাত্রলীগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন। আমরা তা হতে দিব না।

জীবন দিয়ে হলেও ছাত্রলীগকে বিতর্কিতমুক্ত করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি আরও বলেন, ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কি এমন ক্ষমতা রয়েছে যে, তারা নেত্রীর নির্দেশনা অমান্য করছে? বিতর্কিতদের বাদ দেয়ার পরিবর্তে তাদের সফরসঙ্গী করছে? তারা মনে হয় ভুলে গেছে ছাত্রলীগ কারও পৈত্রিক সম্পত্তি নয়। সেজন্য দফায় দফায় বিতর্কিতদের বাদ দেয়ার কথা বলেও তারা তা করেনি।

তিনি বলেন, আমরা নেত্রীর সাক্ষাৎ চাই। তার কাছেই আমরা সব খুলে বলতে চাই। সেটা না হওয়া পর্যন্ত অনশন চলবে। আওয়ামী লীগ বা ছাত্রলীগের কোনো পর্যায় থেকে অনশনকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়নি বলেও জানান তিনি।

আন্দোলনকারীদের ৪ দফা দাবি হলো- প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ; ছাত্রলীগের কমিটির যে ১৯ জন বিতর্কিত নেতার পদ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে তাদের নাম ও পদের নাম প্রকাশ; কমিটিতে যত বিতর্কিত রয়েছে, সবার পদ শূন্য ঘোষণা; পদবঞ্চিতদের মধ্যে যোগ্যতার ভিত্তিতে শূন্য হওয়া পদগুলোতে পদায়ন এবং মধুর ক্যান্টিন ও টিএসসিতে হামলার সুষ্ঠু বিচার।

প্রসঙ্গত, গত ১৩মে গঠিত ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত হয়। ১৫মে কমিটি থেকে বিতর্কিতদের বাদ দিতে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে সংগঠনটির নতুন কমিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।

পদবঞ্চিতরা ১৬মে বিভিন্ন অপরাধ-অপকর্মে জড়িত এবং সংগঠনের গঠনতন্ত্র ও রেওয়াজ পরিপন্থী উপায়ে পদপ্রাপ্ত বিতর্কিত ৯৯ নেতার নাম প্রকাশ করেন। রাজু ভাস্কর্যে শুরু করেন অবস্থান কর্মসূচি। ১৯মে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সিনিয়র চার নেতার হস্তক্ষেপে আন্দোলন স্থগিত করে পদবঞ্চিতরা।

পরবর্তীতে গত ২৭মে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে থাকা বিতর্কিতদের বাদ না দিয়ে, বরং তাদের নিয়েই ধানমন্ডি ৩২ -এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করে ছাত্রলীগ। এর প্রতিবাদে ২৬মে দিবাগত রাত ১টা থেকে ফের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে ফের অবস্থান কর্মসূচী শুরু করেন তারা। এর মধ্যে প্রথম দফায় ছাত্রলীগ ১৭ জন বিতর্কির নাম ঘোষণা করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলেও করেনি। দ্বিতীয় দফায় ১৯টি পদ শূন্য ঘোষণা করলেও সেসব পদধারীদের নাম বাদ পদ কোনোটাই জানায়নি।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com