বড়লেখায় সৌদি রিয়ালের পরিবর্তে ভিম বার সাবান দিয়ে প্রতারণা!

প্রকাশিত: ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯

বড়লেখায় সৌদি রিয়ালের পরিবর্তে ভিম বার সাবান দিয়ে প্রতারণা!

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় টাকার বিনিময়ে সৌদি রিয়ালের পরিবর্তে ভিম বার সাবান দিয়ে প্রতারণা করায় এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়েছে। ওই ব্যক্তির নাম হাসিবুল মিয়া। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার মোকশেদপুর উপজেলার পাথরঘাটা গ্রামের সামাদ মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় ৫টি প্রতারণা ও মাদক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৫ জুন) এই প্রতারককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণভাগ বাজারের মুদি ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলামের দোকানে গিয়ে হাসিবুল মিয়া জানান, এক ব্যক্তি তার নিকট থেকে একটি ১০০ রিয়ালের সৌদি নোট নিয়ে মাত্র ৩০০ টাকা দিয়ে আর টাকা দিচ্ছে না। তার নিকট ১০০ রিয়ালের আরো ১০০টি নোট রয়েছে কিন্তু ভাঙ্গাতে ভয় পাচ্ছে। সাইদুল ইসলাম যদি রিয়ালগুলো নেন তবে তাকে ভাল মুনাফা দিবেন। ১ লাখ টাকা দাম নির্ধারণ করে প্রতারক হাসিবুল চলে যান।

সোমবার দুপুরে ফোনে তিনি জানান রিয়ালগুলো নিয়ে তিনি শাহবাজপুর বাজারে অপেক্ষা করছেন। টাকা দিয়ে সেগুলো আনার অনুরোধ জানালে ব্যবসায়ী সাইদুল এক বন্ধুকে সাথে নিয়ে শাহবাজপুর বাজারের স্কুল এন্ড কলেজের পেছনের রাস্তায় যান। সেখানে আরো দুই ব্যক্তি নিয়ে হাসিবুল অপেক্ষায় ছিলেন।

এসময় ব্যবসায়ী সাইদুল জানান, তিনি ১ লাখ টাকা যোগাড় করতে পারেননি। ৬০ হাজার টাকা এনেছেন। এ টাকায় ১০০ রিয়ালের ৬০টি নোট দিয়ে দিতে। এসময় তিন প্রতারক একটি পোটলার গিট্টু খুলে রিয়ালের ৪-৫টি নোট দিখিয়ে পোটলাটি গামছা দিয়ে আবার গিট্টু দিয়ে বলেন- এখানে ৬০টি নোট রয়েছে। ৬০ হাজার টাকা দেন। এরপর টাকা নিয়ে তারা দ্রুত চলে যান। গিট্টু খুলে রিয়ালের পরিবর্তে পত্রিকা কাগজে মোড়ানো একটি ভিম সাবান দেখেই সাইদুল চমকে উঠেন। দ্রুত ধাওয়া করে জনতার সহায়তায় প্রতারক হাসিবুল মিয়াকে আটক করে স্থানীয় ইউপি অফিসে নিলে ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ জুবায়ের লিটন পুলিশে খবর দেন। এর আগেই অপর দুই প্রতারক প্রদীপ ও তারা মিয়া পালিয়ে যায়।

রোববার এই চক্র দক্ষিণভাগ ইউনিয়নের কাঠালতলী বাজারের সালেহ উদ্দিন নামে আরেক ব্যবসায়ীকে সৌদি রিয়ালের পরিবর্তে গামছায় মোড়ানো কাগজের একটি পুটলা দিয়ে ২ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। সালেহ উদ্দিন মঙ্গলবার বড়লেখা থানায় গিয়ে আটক প্রতারককে সনাক্ত করেছেন।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাতে বলেন, ‘প্রতারিত সাইদুল ইসলাম ৩ প্রতারকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়েছেন। অভিনব কৌশলে প্রতারণা করাই তাদের পেশা। গ্রেপ্তার হাসিবুলের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় প্রতারণা ও মাদক মামলা রয়েছে। মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com