প্রচ্ছদ

হবিগঞ্জে বিদ্যুৎ অফিসে হামলা-ভাঙচুর, কর্মচারীকে মারপিট

প্রকাশিত হয়েছে : ৩:৪৮:০০,অপরাহ্ন ১৪ জুন ২০১৯ | সংবাদটি ২৫ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

হবিগঞ্জ শহরে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের অভিযোগ কেন্দ্রে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরসহ গোলাম মোহাম্মদ খান লিটন নামে এক কর্মচারীকে মারপিট করেছে স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের অভিযোগ কেন্দ্রে হামলা চালিয়েছে শ্যামলী এলাকার বাসিন্দারা।

সূত্রে জানা যায়, মাসখানেক ধরে হবিগঞ্জ শহরে ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নের ঘটনা ঘটছে। সম্প্রতি এর মাত্রা অতিরিক্ত হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় শহরবাসীর মনে ক্ষোভের সঞ্চার হয়। এর এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের শ্যামলী এলাকার একদল যুবক ঘন ঘন বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন কেন হয় কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চায়। বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে অফিসে হামলা ও ভাঙচুর চালায় তারা।

এ সময় তারা বিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের টেলিফোন এবং চেয়ার-টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন। এ সময় সেখানে দায়িত্বে থাকা লিটনকে মারপিটসহ জরুরি কাগজপত্রও তছনছ করে হামলাকারীরা। খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বিরেশ্বর সাহা জানান, শহরের বিভিন্ন স্থানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চলমান। উচ্ছেদের সময় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রাখা হয়। বৃহস্পতিবার শ্যামলী ফিডারের আওতাধীন এলাকায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন রাখা হয়েছিল। তাই ওই এলাকার কতিপয় যুবক এসে অফিসে হামলা-ভাঙচুর এবং সরকারি কর্মচারীকে মারপিট করেছে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সহিদুর রহমান বলেন- “এ ব্যাপারে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com