প্রচ্ছদ

অমিত শাহের নির্বাচনী প্রচারাভিযানে তৃণমূলের হামলার অভিযোগ

প্রকাশিত হয়েছে : ৩:৪১:২৪,অপরাহ্ন ১৫ মে ২০১৯ | সংবাদটি ২৩ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারাভিযানে এসে তৃণমূল কংগ্রেসের রোষানলে পড়লেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি অমিত শাহ।

এ হামলার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দুষছে ক্ষমতাসীন দলটি। খবর এনডিটিভির।

এদিকে তৃণমূলের অভিযোগ, মঙ্গলবার অমিত শাহের রোড শো থেকেই বিদ্যাসাগর কলেজে তাণ্ডব চালানো হয়েছে। ভাঙা হয়েছে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তিও।

তবে বিজেপির পাল্টা অভিযোগ, অমিত শাহের রোড শোতে ইট ছুড়ে আক্রমণ চালিয়ে প্রথমে গোলমাল বাধিয়েছে তৃণমূলই। এমনকি রোড শো শুরুর আগেই পোস্টার-ফেস্টুন খুলে নিয়ে প্ররোচনা সৃষ্টির চেষ্টা চালিয়েছে তারা।

এদিকে, মঙ্গলবার নির্বাচনী প্রচারের ফাঁকে বিদ্যাসাগর কলেজে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার খবর পান মমতা। সেখান থেকেই তিনি কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে ফোন করে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার নির্দেশ দেন।

পুলিশ কমিশনার রাজেশ কুমার রাতে জানান, তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতেই মুখ্যমন্ত্রী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মূর্তি ভাঙার ঘটনায় তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা হয়েছে। আগুন জ্বালানো হয়েছে। কোনো রাজনৈতিক দলের এরকম হাঙ্গামা কখনও দেখিনি।

বিহার-রাজস্থান থেকে গুণ্ডা এনে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। নিন্দা জানানোর ভাষা নেই। আমি লজ্জিত এবং ক্ষমাপ্রার্থী। বাংলার মানুষ হয়ে আমরা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরকে সম্মান দিতে পারি না বিজেপির গুণ্ডাদের জন্য।

কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদ (টিএমসিপি) নেতা অভিষেক মিশ্র অভিযোগ করেন, আমরা কিছু করিনি। ক্যাম্পাসের ভেতরে পোস্টার নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলাম। বিজেপির লোকজন দেয়াল টপকে ঢুকে ইট ছুড়তে শুরু করে।

তিনি বলেন, বিজেপির মিছিল থেকেই হাঙ্গামা হয়েছে। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে ওরা। মূর্তি ভাঙার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যাসাগর কলেজের অধ্যক্ষ গৌতম কুণ্ডু।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com