প্রচ্ছদ

১০ বাংলাদেশি অপহরণে জড়িত থাকায় ৫ পুলিশ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত হয়েছে : ৯:৩৪:০৬,অপরাহ্ন ০৪ এপ্রিল ২০১৯ | সংবাদটি ২৯ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

দক্ষিণ আফ্রিকায় অপহরণ, চাঁদাবাজি ও মানবপাচারের অভিযোগে ৫ পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে এসএপিএস (দক্ষিণ আফ্রিকা পুলিশ সার্ভিস)।

মঙ্গলবার এক ব্রিফিংয়ে এমন তথ্য জানিয়েছেন ন্যাশনাল পুলিশ কমিশনার জেনারেল কেখলা জন সিথল। তিনি জানান, দুটি পৃথক অভিযোগে ৫ পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে, যার মধ্যে মানবপাচার ও মুক্তিপণসহ চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, জিম্বাবুয়ের পথ ব্যবহার করে ১০ বাংলাদেশিকে অপহরণের মাধ্যমে পাচারের অভিযোগে সিলভারটন ফ্লাইং স্কোয়াড কনস্টেবলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

‘এসএপিএসের ন্যাশনাল ক্রাইম ইন্টেলিজেন্স অপহরণ বিষয়ে মামলার বিরতিহীনভাবে তদন্ত করতে গিয়ে চার সিলভারটন ফ্লাইং স্কোয়াড কনস্টবলদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে এ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট সোমবার প্রদান করে। রিপোর্ট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। বাকি একজনকে শিগগিরই গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন ন্যাশনাল পুলিশ কমিশনার’।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে চাঁদাবাজির অভিযোগে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে মামালোডি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

‘একজন মাদক ব্যবসায়ী, পুলিশের দুর্নীতি দমন ইউনিটের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানায়, তার কাছে থেকে ওই দুই কর্মকর্তা চাঁদা দাবি করছে’ এমন অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাদের কাছ থেকে চাঁদাবাজির টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ কমিশনার সিথল এসব অবৈধ কর্মকাণ্ডে পুলিশ কর্মকর্তাদের জড়িত থাকার বিষয়ে তিনি হতাশা প্রকাশ করে বলেন- ‘আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য নিযুক্ত সদস্যরা যখন নিজেরা অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে, তখন এটি হতাশাজনক।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যখন এদের আইনের আওতায় নিয়ে আসছি, তখন এ সদস্যদের গ্রেফতার হওয়ায় অন্য সদস্যদেরও সতর্কতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে এবং মনে করতে হবে কারও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড কখন্টো সহ্য করা হবে না’।

জানা যায়, গ্রেফতারকৃত পুলিশ সদস্যরা বর্তমানে হেফাজতে রয়েছে; সঠিক তারিখ নির্ধারণ করে তাদের কোর্টে হাজির করা হবে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com