প্রচ্ছদ

মনোনয়নপত্র বাতিলে ‘চক্রান্ত’ দেখছেন এবাদুর রহমান

প্রকাশিত হয়েছে : ১০:৪৪:৪৫,অপরাহ্ন ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ৫ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

মৌলভীবাজারে-১ (বড়লেখা-জুড়ী) আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবাদুর রহমান চৌধুরী মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। রোববার (২ ডিসেম্বর) মৌলভীবাজার রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম যাচাই-বাছাই শেষে তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।

মনোনয়নপত্র বাতিলকে চক্রান্ত বলে মনে করেন এবাদুর রহমান। নিজের ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে এমন দাবি করেছেন এই বিএনপি নেতা।

যদিও মৌলভীবাজারের রিটার্নিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হলফনামায় আয়কর রির্টান কপির অনুলিপি জমা না দেওয়ায় কারণে এবাদুর রহমান চৌধুরী মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে এডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী রোববার দুপুরে নিজের ফেসবুক পেজে দেওয়া পোস্টে লিখেন-

‘আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করার বিষয়টি চক্রান্ত। ১৯৮৪ সাল থেকে আমি একজন নিয়মিত করদাতা। আমার কোন ব্যাংক লোন নেই। মৌলভীবাজার-১ আসন থেকে সাতবার নির্বাচন করেছি, চারবার এমপি হয়েছি। এবারই প্রথম মনোনয়নপত্র বাতিল করা হল। আইন পেশায় আমার ৫০ বছর হয়ে গেছে। প্রতিবারের মতো এবারও আমার মনোানয়নপত্র আমি নিজে লিখে দাখিল করেছি। এ ব্যাপারে আমি নির্বাচন কমিশনে আপিল করব। বাংলাদেশর প্রচলিত আইনে আমার মনোনয়ন বাতিল করবার কোন আইনগত ভিত্তি নাই। মনোনয়ন পত্র বাতিলের দিক থেকে এবারের নির্বাচন রেকর্ড গড়েছে। দেশেনত্রী বেগম জিয়া সহ আমাদের যেসব প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে, তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।’

প্রসঙ্গত, আইনজীবী এবাদুর রহমান চৌধুরী জাতীয় পার্টি থেকে একবার এবং বিএনপি থেকে তিনবার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি চারদলীয় জোট সরকারের আমলে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। এসময় তিনি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেন। ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী এবাদুর রহমান চৌধুরী আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. শাহাব উদ্দিনের কাছে হেরে আসনটি হাতছাড়া হয়।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com