প্রচ্ছদ

ঈদুল আযহায় নতুন কিছু নিয়ে রানওয়ে ম্যানিয়াক

প্রকাশিত হয়েছে : ১:৩৩:০৫,অপরাহ্ন ১৮ আগস্ট ২০১৮ | সংবাদটি ২৫৮ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

 

ডেস্ক রিপোর্ট: সাম্য আর শান্তির বার্তা নিয়ে আবারও দুয়ারে এসেছে ঈদ। ঈদ মানে ই আনন্দ। সারা বছরের সংকীর্ণ তাকে ভুলে গিয়ে উদার মনে সবাইকে ভালোবাসার প্রতিজ্ঞা।

মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসবের দিন এটি।  ঘরে ঘরে আনন্দের জোয়ার। মজার সব খাবার, ইচ্ছামতো ঘোরাঘুরি আর নতুন পোশাকের ঘ্রাণ। এই নতুন পোশাক ছাড়া ঈদের আনন্দ পানসে হয়ে যায়। তাইতো গরিব ধনী সবাই যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী সবচেয়ে সুন্দর পোশাকটি কিনে আনেন।

প্রতিবারের ঈদ মানেই ফ্যাশনে কিছু পরিবর্তন, নতুন কিছু যোগ। প্রতি বছরই আমূল বদলে যায় না। তবে কিছু না কিছু নতুন তো যোগ হয়ই। হয়তো কাটিংয়ে কিছু পরিবর্তন  আসে।

ছেলেদের ঈদের পোশাক মানেই পাঞ্জাবি আর টি শার্ট। ফ্যাশন হাউসগুলোও সেকথা মাথায় রেখে নিয়ে এসেছেন নানা রঙের পাঞ্জাবি। নকশা হিসেবে বেশি ব্যবহৃত হয়েছে ফুলের মোটিফ, জ্যামিতিক মোটিফের নানা ধরন। ফুলের বাইরে পাতা, ময়ূর, শাখা-প্রশাখা জাতীয় শৈলী এবারের ঈদ ট্রেন্ডে ঢুকেছে। পাঞ্জাবি যেন হয়ে উঠেছে ডিজাইনারের রং করা ক্যানভাস। ফ্যাশন হাউসগুলোর পাঞ্জাবির সংগ্রহে থাকছে নতুন নকশা, নতুন রং।

এছাড়া কাটিংয়েও এসেছে পরিবর্তন, বাজার দখল করে আছে শর্ট আর সেমি লং পাঞ্জাবি। সঙ্গে শর্ট কাটের ফতুয়াও বেশ ট্রেন্ডি এখন। চেক নয়, ছাপা নকশার শার্টই এবার ঈদ ফ্যাশনে বেশি চলছে। বৈচিত্র্যময় ছাপা নকশার শার্টের চাহিদা বেশি। ঈদ ফ্যাশন কেমন হবে তা অনেকটা নির্ভর করে ঋতু আর ট্রেন্ডের ওপর। আবহাওয়ার কারণে উৎসবে এখন গুরুত্ব পাচ্ছে ক্যাজুয়াল শার্ট। শরতের ঈদ বলে নীল রঙের অনেক পোশাক বাজারে। নানা ধরনের ওয়াশ করে ফেড করা শার্টও ঈদের বাজারে ভালো চলছে।

পাশাপাশি গরম আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখেই তরুণরা এবারও পোলো টি শার্টগুলোকে পছন্দের তালিকায় রেখেছে।

রানওয়ে ম্যানিয়াক এর আয়োজনে ছবিতে মডেলিংয়ে আছেন-  এইচ ডি ইমন, সুফিয়ান, জাহিদুল রশিদ, নাহিদ, রাফি,ইমন, সাদ্দাম, জিল্লুর। এতে পোশাক পোষাক সরবরাহ করেছে বিন্দু ও মনোরম নামের দুটি প্রতিষ্ঠান।

ছবি তুলেছেন: আতিক আনন্দ।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com