প্রচ্ছদ

হেলিকপ্টারে গেলেন, রিকশায় চড়ে ঘুরলেন

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:২২:১১,অপরাহ্ন ১১ মে ২০১৮ | সংবাদটি ১৪ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত নির্বাচিত হওয়ার পর মো. আবদুল হামিদ তাঁর নিজ এলাকা সফর করেছেন।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে হেলিকপ্টারে করে মিঠামইন উপজেলা হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন রাষ্ট্রপতি।

হেলিপ্যাড থেকে রিকশায় চড়ে উপজেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে যান। সেখানে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেন। পরে তিনি আবার রিকশায় চড়ে মিঠামইন বাজার ঘুরে দেখেন। সেখানে জুমার নামাজ আদায় করেন তিনি। বিকেল চারটার দিকে আবার ঢাকায় ফেরেন রাষ্ট্রপতি।

কিশোরগঞ্জের হাওরের মানুষ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। জেলার মিঠামইন উপজেলার কামালপুর গ্রামে তাঁর বাড়ি। রাষ্ট্রপতি হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ নেওয়ার পর শুক্রবার প্রথম নিজ এলাকা সফর করলেন তিনি।

গত ২৪ এপ্রিল দেশের একবিংশতম রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে আবদুল হামিদকে বঙ্গভবনের দরবার হলে দ্বিতীয়বারের মত শপথ নেন। তাঁকে শপথ পড়ান স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরী।

এরআগে ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন আবদুল হামিদ।

রাষ্ট্রপতি বেলা সোয়া দুইটার দিকে কামালপুর গ্রামের নিজ বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে হাওরে সম্প্রতি বজ্রপাতে নিহত মানুষজনের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘প্রাকৃতিক নানা দুর্যোগ মোকাবিলা করেই হাওরবাসীকে টিকে থাকতে হয়। গত বছর আগাম বন্যায় হাওরে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল। এ বছরও বৈরী আবহাওয়ার কারণে হাওরের মানুষ অনেক কষ্ট করছেন।’

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ‘হাওরে এ বছর বাম্পার ফলন হয়েছে। কিন্তু ১০-১২ দিন ধরে বৈরী আবহাওয়ার কারণে হাওরের মানুষদের ফসল তুলতে খুব কষ্ট করছে।’

গত দেশজুড়ে বজ্রপাতে শুক্রবারসহ ১২ দিনে ১২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে, এরমধ্যে কিশোরগঞ্জের হাওরে বজ্রপাতে মারা গেছেন অন্তত ১৫ জন।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com