প্রচ্ছদ

প্রেমের টানে ফিলিপাইনের তরুণী ফুলবাড়ীতে

প্রকাশিত হয়েছে : ১০:৩৬:৪০,অপরাহ্ন ২৯ মার্চ ২০১৮ | সংবাদটি ৩৫২ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

প্রেম মানে না কোনো জাতকুল, প্রেম মানে না দেশ-বিদেশ। প্রেমের টানে সুদূর সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ীতে এসেছেন ফিলিপাইনের এক তরুণী। তার নাম ইয়াসমিন।

ওই তরুণী বাংলাদেশি তরুণ রুবেল আহমেদের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।বর্তমানে তিনি উপজেলার কাশিপুরের প্রেমিক রুবেল আহমেদের বাড়িতে অবস্থান করছেন।

বৃহস্পতিবার প্রেমিক রুবেল জানান, সিঙ্গাপুরে একটি গ্লাস কোম্পানিতে কর্মরত থাকায় তার সঙ্গে ফিলিপাইনের ফারান্দ ইসলামের মেয়ে ইয়াসমিনের পরিচয়। সেই পরিচয় থেকেই তাদের মধ্যে প্রেম।

তিনি বলেন, পরিবারের লোকজন বিষয়টি শুনে আমাদের সম্পর্ককে স্বীকৃতি দিয়েছে। আমরা ২৫ মার্চ ঢাকায় একটি আদালতে এফিডেভিট করার মাধ্যমে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি। বর্তমানে আমরা দুজনেই ইসলাম ধর্মমতে স্বামী-স্ত্রী। বাকিটা জীবন একসঙ্গে কাটাতে চাই।

স্থানীয়রা জানান, রুবেল ১০ বছর ধরে সিঙ্গাপুর থাকেন। সম্প্রতি তিনি ছুটিতে বাংলাদেশে আসেন। দীর্ঘ পাঁচ মাস থেকে তাদের মধ্যে দেখা না থাকায় উপায়ন্ত না পেয়ে ইয়াসমিন বাংলাদেশে তার কাছে ছুটে আসেন।

রুবেলের বাবা বেলাল হোসেন জানান, আমি কৃষক মানুষ। ছেলের ভালোই আমার ভালো। তারা যেহেতু একজন আরেকজনকে পছন্দ করে, সে জন্য তাদের সুখের কথা চিন্তা করে আমরা তাদের সম্পর্ক মেনে নিয়েছি। কোর্টের মাধ্যমে তাদের বিয়ে দিয়েছি। বাড়িতে অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই এলাকাবাসী ও আত্মীয়স্বজনদের জন্য বৌভাতের অনুষ্ঠান করা হয়েছে। সবাই আমার ছেলে ও ছেলের বউয়ের জন্য দোয়া করবেন।

রুবেলের চাচা ও সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল খালেক জানান, ২৫ মার্চ রুবেল ও ইয়াসমিনের বিয়ের পর বাড়িতে বৌভাতের আয়োজন করা হয়। নতুন এ দম্পতি শিগগিরই আবারও সিঙ্গাপুরে তাদের কর্মস্থলে ফিরে যাবেন।

এ ব্যাপারে কাশিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলজার হোসেন ও ফুলবাড়ী থানার ওসি খন্দকার ফুয়াত রুহানী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com