প্রচ্ছদ

সেই লালুর প্রসাদের সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত হয়েছে : ৯:১৭:২৮,অপরাহ্ন ০৬ জানুয়ারি ২০১৮ | সংবাদটি ৪ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারতের বিহারের বহুল আলোচিত রাজনীতিক ও সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদবের সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভারতের একটি আদাল। পশুখাদ্য দুর্নীতি মামলায় শনিবার বিহারের রাজধানী রাঁচীর সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত এ রায় দেন।

একই সঙ্গে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা ও অতিরিক্ত ছয় মাসের কারাদণ্ডের রায় দেয়া হয়েছে বিহারের সাবেক এ মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। এদিকে রায় ঘোষণার কিছুক্ষণ আগে লালুর ছেলে ও তার রাজনৈতিক দল রাষ্ট্রীয় জনতা দলের (আরডিজে) নেতা তেজস্বী যাদব বিচারব্যবস্থার প্রতি তার আস্থা নেই বলে জানান।

তিনি বলেন, ‘বিচার বিভাগ তার দায়িত্বপালন করছেন। রায় পর্যালোচনার পর আমরা হাইকোর্টে যাব এবং জামিনের আবেদন করব।’ খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

চলতি সপ্তাহে লালুর বিরুদ্ধে চূড়ান্ত রায় ঘোষণা তিনবারের মতো বাতিল করা হয়। পরে শনিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রায় ঘোষণা করেন রাঁচীর বিচারক শিব পাল সিং।

লালুর বিরুদ্ধে পশুখাদ্য মামলার শুনানির পর বিচারক শিব পাল তার পর্যবেক্ষণে বলেন, ‘দোষী সাব্যস্ত লালু প্রসাদের জন্য উন্মুক্ত কারাগারই সর্বোত্তম জায়গা, কারণ তার গরু পালনের অভিজ্ঞতা আছে।’

১৯৯০-৯৪ সালে পশুখাদ্য কেনাকাটায় সাড়ে ৮৪ লাখ রুপি হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে রাষ্ট্রীয় জনতা দলের প্রধান লালু ও আরো ১৫ জনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় গত ২৩ ডিসেম্বর দোষী সাব্যস্ত হন তিনি। পশুখাদ্য দুর্নীতির অভিযোগের পাঁচ মামলায় লালু প্রথম দোষী সাব্যস্ত হন ২০১৩ সালে। ওই সময় তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

বিহারের সাবেক এ মুখ্যমন্ত্রী বর্দমানে রাঁচীর বীরসা মুন্ডা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে শুক্রবার সর্বনিম্ন সাজার আবেদন করেন লালু।

আগে লালু প্রসাদ তার বিভিন্ন বক্তব্য ও কর্মকাণ্ডের জন্য ভারতজুড়ে আলোচিত রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত পায়।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com