সোমবার, ০১ জানু ২০১৮ ১০:০১ ঘণ্টা

স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ!

Share Button

স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ!

বরগুনায় স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেধেঁ স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলে মামলা না নেয়ায় বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেছেন ধর্ষিতার স্বামী।

শুক্রবার বরগুনার বামনার এক গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, সোমবার বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জুলফিকার আলী খানের আদালতে মামলাটি করেন ধর্ষিতার স্বামী। বিচারক মামলাটি গ্রহণ করে বামনা থানাকে এজাহার রুজু করার আদেশ দেন।

মামলার আসামিরা হলেন বামনা উপজেলার খোলপটুয়া গ্রামের সুলতান মাস্টারের ছেলে মিজানুর রহমান জহির, আশ্রাফ মল্লিকের ছেলে নাসির মল্লিক ও আশ্রাফ কাজীর ছেলে পারভেজ কাজী।

ধর্ষিতার স্বামী অভিযোগ করেন, আসামীরা দীর্ঘদিন তার স্ত্রীকে উত্যক্ত করে আসছিল। প্রতিবাদ করলে আরও বেশি ক্ষিপ্ত হত। শুক্রবার তিনি স্ত্রীকে নিয়ে এক জায়গায় বেড়াতে যান। রাত ৭টার দিকে একই উপজেলায় মিজানুর ধারালো ছোরা বের করে ভয় দেখিয়ে মাফলার দিয়ে তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে তার স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে।

এ বিষয়ে বাদী যুগান্তরকে জানান, ডিসেম্বর মাসে ট্রাইব্যুনাল বন্ধ থাকায় ঘটনার পরদিন (শনিবার) বামনা থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা নেয়নি। আসামিদের ফোন বন্ধ থাকার কারণে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

বামনা থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ সোমবার মোবাইলফোনে যুগান্তরকে বলেন, আমি স্টেশনে ছিলাম না। খোঁজ নিয়ে দেখেছি থানায় কেউ মামলা করতে আসেনি। তবে আদালতের আদেশ পেলে আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।