রবিবার, ৩১ ডিসে ২০১৭ ১১:১২ ঘণ্টা

বাবার বিরুদ্ধে মামলা করেনি ৩ মেয়ের কেউ

Share Button

বাবার বিরুদ্ধে মামলা করেনি ৩ মেয়ের কেউ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাকে হত্যার দায়ে বাবার বিরুদ্ধে মামলা করেনি তিন মেয়ের কেউ। হত্যাকাণ্ডের ২ দিন পর রোববার বিকালে পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

এরআগে শুক্রবার দুপুর ১২টায় ফতুল্লার পাগলা ভাবী বাজার এলাকায় নিজাম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি জমি সংক্রান্ত বিরোধে তার তালাক দেয়া স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম সাবিহাকে (৪০) ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। এসময় স্থানীয়রা নিজাম উদ্দিনকে ঘটনাস্থলেই আটক করে মারধর করে গাছের সঙ্গে বেধে রাখে। পরে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন, নিহত সাবিহার তিন মেয়ে হাবিবা চৌধুরী চয়নীকা, ফাইমীন চৌধুরী ও আইমীন চৌধুরী। হত্যাকাণ্ডের পর একাধিকবার নিহতের ওই তিন মেয়ে ও দুই ভাইকে থানায় এসে মামলা করার জন্য তাগিদ দেয়া হয়। কিন্তু তারা কেউ মামলা করবে না বলে দুইদিন পর জানিয়ে দেয়।

এরপর পুলিশের এসআই আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে আটক নিজাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

আটক নিজাম উদ্দিন চৌধুরী (৫০) রাজধানীর ৯৩/৩ নবাবপুর এলাকার মৃত.গোলাম কিবরিয়া চৌধুরীর ছেলে।

নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, তিনি মোটরপার্টসের ব্যবসা করতেন। তার ২ শ্যালক বিভিন্ন সময় তার টাকা পয়সা হাতিয়ে নিয়ে সর্বশান্ত করেছে। এখন বেকার। ব্যবসা করার সময় স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম সাবিহার নামে পাগলা ভাবী বাজার এলাকায় ৬ কাঠা জমি ক্রয় করেন।

সেই জমি এখন সে একা ভোগ করবে তার ভাইদের নিয়ে। এনিয়ে বিরোধ হলে ওই জমিতে কোনো কাজ না করতে আদালত থেকে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করি। এরপরও তারা সেই জমি দখল করতে যায়। এনিয়ে ক্ষুদ্ধ হয়ে সবজি কাটার ছুরি দিয়ে সাবিহাকে ছুরিকাঘাত করেন নিজাম উদ্দিন।