মঙ্গলবার, ০১ নভে ২০১৬ ০৫:১১ ঘণ্টা

হবিগঞ্জের দুই রাজাকার কামান্ডারের বিচার শুরু

Share Button

হবিগঞ্জের দুই রাজাকার কামান্ডারের বিচার শুরু

মুক্তিযু্দ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় পলাতক হবিগঞ্জের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী ও আমিনুল ইসলাম ওরফে রজব আলীর অপরাধের বিচার শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১ নভেম্বর)  ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের  আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তাদের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) গঠন করার নির্দেশ দেন।

একই সঙ্গে আগামী ৩ ডিসেম্বর  মামলায় সূচনা বক্তব্য ও সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণের জন্য দিন ঠিক করা হয়েছে। অভিযোগ গঠন করার মধ্য দিয়ে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউশন টিম থেকে শুনানি করেন প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত  এবং  রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিদের পক্ষে ছিলেন রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী গাজী এম এইচ তামিম।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর এই দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি শেষে আদেশের জন্য আজ ১ নভেম্বর দিন ঠিক করেছিলেন ট্রাইব্যুনাল। এর আগে গত ১৮ মে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেন আদালত।

আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা, গণহত্যা, আটক, অপহরণ, নির্যাতন ও লুটপাটসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের সাতটি অভিযোগ আনা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে ২৭ জন ও জব্দ তালিকার ২ জনসহ মোট ২৯ জন সাক্ষী রয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধের সময় জেলার লাখাই থানার ফান্দাউক ইউনিয়ন রাজাকার কমান্ডার সে সময়কার মুসলিম লীগ নেতা মো. লিয়াকত আলী ও হবিগঞ্জের অধিবাসী কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম থানার আলবদর কমান্ডার রজব আলীর বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর মামলার তদন্তের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন প্রকাশ করে ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা।

এ দুই রাজাকার মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পাশাপাশি তিন থানা হবিগঞ্জ জেলার লাখাই, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ও কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামে এসব অপরাধ করেছেন।