সোমবার, ১০ অক্টো ২০১৬ ০২:১০ ঘণ্টা

শাল্লার ইউএনও’র বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে দুদক

Share Button

শাল্লার ইউএনও’র বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে দুদক

৩০ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ বিন ইকরামেরর বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

পাথর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ওই অর্থ ঘুষ হিসেবে গ্রহণ করেছেন বলে এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি কমিশন থেকে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রোববার (০৯ অক্টোবর) দুদক সূত্রে তা নিশ্চিত হওয়া যায়।

দুদক থেকে জানা যায়- আসিফ বিন ইকরাম সিলেটের কোম্পানিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে পাথর ব্যবসায়ীদের অনৈতিক সুবিধা দেওয়ার বিনিময়ে ৩০ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণ করেন।

গত আগস্টে দুই পৃষ্ঠার এমন অভিযোগ দুদকের প্রধান কার্যালয়ে জমা পড়ে। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগ যাচাই শেষে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নিয়ে সেপ্টেম্বরে দুই সদস্যের অনুসন্ধান টিম গঠন করে দুদক।

কমিশনের সহকারী পরিচালক মো. শফিউল্লাহর নেতৃত্বে গঠিত টিমের অপর সদস্য হলেন- উপ-সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামান।

অনুসন্ধান কাজে তদারককারী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পরিচালক এ.কে.এম জায়েদ হোসেন খানকে। একই সঙ্গে অভিযোগটি অনুসন্ধান শেষে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য কমিশন থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।