প্রচ্ছদ

জিয়াই বাংলাদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রবর্তন করেছিলেন

প্রকাশিত হয়েছে : ৮:০১:৩৭,অপরাহ্ন ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ১১ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

ঘটনাবহুল ৭ নভেম্বর উপলক্ষে বুধবার বিকেলে সিলেট নগরীর সোবহানীঘাটস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির উদ্যোগে বুধবার বিকেলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সিলেট মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি জিয়াউল গনি আরেফিন জিল্লুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম।

সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামালের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েছ লোদী, জেলা বিএনিপর সহ সভাপতি এ কে এম তারেক কালাম, আজির উদ্দিন চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির উপদেষ্টা মাজহারুল ইসলাম ডালিম, মহানগর বিএনপির উপদেষ্টা সৈয়দ বাবুল হোসেন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল মুর্শেদ, জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট ফখরুল হক, মহানগর বিএনপির প্রচার সম্পাদক শামীম মজুমদার, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, হাবিব হোসেন শিলু, অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিন তফাদার, সুরমান আলী, মির্জা বেলায়েত হোসেন লিটন, লায়েছ আহমদ, আফজল উদ্দিন, লল্লিক আহমদ চৌধুরী, ওহিদ তালুকদার, হাবিবুর রহমান হাবিব, জেবরুল হাসান ফাহিম, লোকমান আহমদ, আব্দুল মালেক, এডভোকেট ইসরাফিল, আব্দুল লতিফ খান, আব্দুস সত্তার আমিন, আব্দুল ওয়াহিদ, শাহ নেওয়াজ বখত তারেক, কামাল হাসান জুয়েল, সহিবুর রহমান সুজান, মফিজুর রহমান জুবেদ, আব্দুস সবুর, সাগর আহমদ কয়েছ, উজ্জ্বল রঞ্জন, জিয়াউর রহমান দিপন, মোতাহের আলী মাখন, ময়নুল ইসলাম মঞ্জু, মল্লিক আহমদ, দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, দেলোয়ার হোসেন রানা, ময়নুল হক স্বাধীন, আলমগীর বখত সুয়েব, লুৎফুর রহমান, মকবুল হোসেন, জাবেদ আহমদ জীবন, কুমকুম বেগম প্রমুখ।

সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন মহানগর বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. আশরাফ আলী।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন সেলিম বলেন, জিয়াউর রহমানের বদৌলতেই বাংলাদেশে এক দলীয় শাসন বাকশালের পরিবর্তে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তন হয়েছিল। জিয়া বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তন করেছিলেন বলেই শেখ হাসিনা আজকে আওয়ামীলীগ সভানেত্রী এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পেরেছেন, এজন্য তার জিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকা উচিত।

সভায় বক্তারা উচ্চ আদালতের জামিন থাকা সত্বেও সিলেট জেলা বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আ.ফ.ম কামাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ হোসেন, সদর উপজেলা বিএনপির ১ম যুগ্ম সম্পাদক ফারুক আহমদ, জেলা বিএনপির সদস্য ওয়ারিছ আলী, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন সহ ২৪জন নেতাকর্মীকে জেলে প্রেরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের মুক্তি দাবী করেন। একই সাথে কারাবন্দি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আলী হোসেন বাচ্চু, জেলা বিএনপির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আল মামুন খান, বিশ্বনাথ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপি সদস্য নুর উদ্দিন আহমদ, ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গয়াছ মিয়া সহ কারাবন্দি সকল নেতৃবৃন্দের মুক্তি দাবী করেন। একই সাথে গোলাপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জলকে গ্রেফতারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com