প্রচ্ছদ

চলন্ত ট্রেনের ভিডিও করতে গিয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত হয়েছে : ১০:০১:৩৫,অপরাহ্ন ২২ অক্টোবর ২০১৮ | সংবাদটি ৬ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

চলন্ত ট্রেনের ভিডিও করতে গিয়ে দুই পা হারানো ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ছাত্র ফাহিম আরমান সাজ্জাদ (২২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ফাহিম কিশোরগঞ্জ শহরের হয়বতনগর এলাকার মরহুম আমিনুল হক তপনের ছেলে।

রেলওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে কিশোরগঞ্জ রেল স্টেশনে বন্ধুদের সঙ্গে চলন্ত ট্রেনের ভিডিও ধারণ করছিলেন সাজ্জাদ। এ সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি প্লাটফরমে ঢুকছিল। ভিডিও ধারণে মগ্ন থাকা সাজ্জাদের কাছাকাছি এসে পড়ে ট্রেনটি। তখন বন্ধুসহ অন্য লোকজন চিৎকার করে ডাকাডাকি করলে শেষ মুহূর্তে সাজ্জাদ সরে আসার চেষ্টা করেন। ততক্ষণে তাঁর দুই পা ট্রেনের নিচে পড়ে যায়। এতে তাঁর এক পা হাঁটুর নিচ থেকে এবং আরেক পা উরুর নিচ থেকে কাটা পড়ে।

সঙ্গে থাকা বন্ধু ও স্থানীয় লোকজন দ্রুত সাজ্জাদকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাঁকে ঢাকার জাতীয় অর্থপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) স্থানান্তর করেন। সেখানে রাত ১০টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়।

ফাহিম আরমান সাজ্জাদ নিয়মিত ইউটিউবে বিভিন্ন বিষয় ভিত্তিক ভিডিও আপলোড দিতেন। এর অংশ হিসেবে ফেসবুক কিংবা ইউটিউবে আপলোড করার জন্য তিনি ট্রেনের ভিডিওচিত্র ধারণ করছিলেন বলে ধারণা তার বন্ধুদের।

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল আজম সাংবাদিকদের জানান, ঝুঁকিপূর্ণভাবে ভিডিও করতে গিয়ে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com