প্রচ্ছদ

ইমরান তাহিরের ঘূর্ণিতে দুরন্ত জয় দক্ষিণ আফ্রিকার

প্রকাশিত হয়েছে : ২:০৬:৪৮,অপরাহ্ন ১০ অক্টোবর ২০১৮ | সংবাদটি ১৭ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাই করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম ম্যাচে মাসাকাদজা বাহিনীকে উড়িয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও সেই আভাস দিয়ে রাখলেন প্রোটিয়ারা। ইস্ট লন্ডনে ইমরান তাহিরের ঘূর্ণিতে সফরকারীদের ৩৪ রানে হারিয়েছেন তারা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। ১১ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে ফেলেন স্বাগতিকরা। পরে অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসকে নিয়ে প্রাথমিক ধাক্কা সামলে উঠেন অভিষিক্ত ভ্যান ডার ডুসেন। দলীয় ৫৩ রানে ব্যক্তিগত ৩৪ করে ডু প্লেসিস ফিরলেও থেকে যান তিনি। এর পর তাকে সঙ্গ দেন কিলারখ্যাত ডেভিড মিলার। দুজনের ঝড়ে বালির মতো উড়ে যান জিম্বাবুয়ে বোলাররা।

দলীয় ১৩৯ রানে ফেরেন মিলার। কাইল জার্ভিসের শিকার হয়ে ফেরার আগে ৩৪ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ৩৯ রান করেন তিনি। বাকি সময়ও তাণ্ডব চালান ডুসেন। তিনি ফেরেন দলীয় ১৪৯ রানে। এর আগে অভিষেকেই দুর্দান্ত ফিফটি তুলে নেন তিনি। ৪৪ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫৬ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরের পথ ধরেন এ বিস্ফোরক ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৬০ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজি দাঁড় করায় দক্ষিণ আফ্রিকা। জিম্বাবুয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন জার্ভিস। ২ উইকেট নেন ক্রিস্টোফার এমপুফু।

জবাবে ইমরান তাহিরের বিষাক্ত ঘূর্ণিতে শুরুতেই বিপাকে পড়ে জিম্বাবুয়ে। স্কোর বোর্ডে ১১ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেন সফরকারীরা। সবকটি শিকার বানান তাহির। পরে একপ্রান্ত আগলে রোবটের মতো চেষ্টা করেন পিটার মুর। ২১ বলে ১ চার ও ৫ ছক্কায় ৪৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। আউট হন শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে। তবে তাকে কেউ যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি। শেষ দিকে ১৫ বলে ২টি করে চার-ছক্কায় ২৮ রানের ক্যামিও খেলেন ব্রেন্ডন মাভুতা। তবে জয়ের জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। শেষ পর্যন্ত ১৭.২ ওভারে ১২৬ রানে গুটিয়ে যান জিম্বাবুইয়ানরা। ৩৪ রানে আরেকটি হারের হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়েন তারা।

ইমরান তাহির ৪ ওভারের কোটা পূরণ করে ২৩ রান খরচায় নেন ৫ উইকেট। ২টি করে উইকেট নেন জুনিয়র দালা ও আন্দিলে ফিকোয়াও।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com