প্রচ্ছদ

শ্রীমঙ্গলে পুকুরে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:২৮:৪৮,অপরাহ্ন ১৬ আগস্ট ২০১৮ | সংবাদটি ৫১ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পুকুরের পানিতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হওয়ার প্রায় ৫ ঘণ্টা পর মো. হাসান (১২) নামে একটি শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল।

বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) শহরতলীর ডাকবাংলো পুকুরে এই ঘটনাটি ঘটে।

সে কুমিল্লার বুড়িচং এলাকার শাহজান মিয়ার ছেলে। তার বাবা মা আলাদা থাকায় শিশুটি শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মে ঘুমাত বলে জানা গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে কয়েকটি ছিন্নমূল শিশু পুকুরের পানিতে গোসল করতে নামে। সেখানে পুকুরের ঘাটের সিঁড়ির নিচ দিকে যাওয়া আসা করছিলো তারা। এসময় পুকুরের সিঁড়ির নিচে শিশুটি আটকে যায়। ঘটনাটি শুনে ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস বিকাল ৫ টা ১৫ মিনিটে ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। পরে রাত সাড়ে আটটায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

ডাকবাংলো এলাকার বাসিন্দা রুবেল মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, শিশুটি গরমের দিনে প্রায়ই এখানে গোসল করতে আসতো। আজও কয়েকটি ছেলে সহ সে পুকুরে সাঁতার কাটছিলো। পরে বিকেলে শুনলাম সে নাকি পানিতে নিখোঁজ। পরে দেখলাম ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে তাকে খুঁজাখুঁজি করে উদ্ধার করে। তার কোন ঠিকানা নেই। সে স্টেশনের প্লাটফর্মে রাত কাটাতো।

শ্রীমঙ্গল ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম বলেন, আমরা বিকাল ৫ টার দিকে ঘটনাটির সংবাদ পাই। আমাদের ডুবুরি দল না থাকায় সিলেট থেকে ডুবুরিরা এসে অভিযান পরিচালনা করে রাত সাড়ে ৮টায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, পুকুরের পুরাতন সিঁড়ির উপর নতুন সিঁড়ি করা হয়েছিলো। নিচের সিঁড়িতে পানি থাকায় শিশুরা সিঁড়ির নিচ দিয়ে সাঁতার কাটে। হাসান ডুব সাতার দিয়ে সিঁড়ি পার হতে গিয়ে দুটো সিঁড়ির মাঝে আটকা পড়ে। সে অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম নজরুল ইসলাম জানান, লাশ থানায় রাখা হয়েছে। তার স্বজনদের বের করে লাশটি হস্তান্তর করা হবে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com