প্রচ্ছদ

সিঙ্গাপুর কোথায় জানতেন না মার্কিন নাগরিকদের বড় একটি অংশ

প্রকাশিত হয়েছে : ১:১৮:৪৩,অপরাহ্ন ১৩ জুন ২০১৮ | সংবাদটি 0 বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
In this picture taken on June 12, 2018 and released from North Korea's official Korean Central News Agency (KCNA) on June 13, 2018, shows North Korea's leader Kim Jong Un (4th R) and US President Donald Trump (3rd L) attend a working lunch with their respective delegations at their historic US-North Korea summit, at the Capella Hotel on Sentosa island in Singapore. / AFP PHOTO / KCNA VIA KNS / - / South Korea OUT / REPUBLIC OF KOREA OUT ---EDITORS NOTE--- RESTRICTED TO EDITORIAL USE - MANDATORY CREDIT "AFP PHOTO/KCNA VIA KNS" - NO MARKETING NO ADVERTISING CAMPAIGNS - DISTRIBUTED AS A SERVICE TO CLIENTS / THIS PICTURE WAS MADE AVAILABLE BY A THIRD PARTY. AFP CAN NOT INDEPENDENTLY VERIFY THE AUTHENTICITY, LOCATION, DATE AND CONTENT OF THIS IMAGE. /

সিঙ্গাপুর নিয়ে হঠাৎ যেন সবার কৌতূহল বেড়ে গেছে। অন্তত রাজনীতিতে যাদের সামান্য আগ্রহ রয়েছে, তাদের কাছে তো বটেই। হবে না-ই বা কেন?

বিশ্বের দুই শক্তিধর দেশের নেতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন যে এই প্রথম এক টেবিলে মুখোমুখি হলেন।

কিন্তু সিঙ্গাপুরটা ঠিক কোথায়? প্রশ্নটা তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ মানুষের একটি অংশ। গুগল ট্রেন্ডসে ঘেঁটে দেখা গেছে, মঙ্গলবারের বৈঠকের আগের ২৪ ঘণ্টায় তা নিয়ে গুগলে অসংখ্য বার সার্চ করেছেন তারা।-খবর আনন্দবাজারপত্রিকা অনলাইনের।

সিঙ্গাপুর নিয়ে উৎসাহই শুধু নয়, সঙ্গে বেশ কিছু অদ্ভুত প্রশ্নও করেছেন মার্কিন নাগরিকরা।

পরমাণু বৈঠকটা কোথায় হবে? ‘ট্রাম্প কতটা লম্বা বা উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের উচ্চতা কত? এ রকম চোখ কপালে তোলা অজস্র প্রশ্ন ভেসে উঠেছে গুগলের সার্চ বারে।

এ পরিসংখ্যান দেখে অনেকেই জিজ্ঞাসা, দুই নেতার বৈঠক কতটা ফলপ্রসূ হল তা নিয়ে কি তা হলে যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ মানুষের কোনো আগ্রহ নেই? কারণ বৈঠক সংক্রান্ত বিষয়ের থেকেও নেট দুনিয়ার বাসিন্দারা খোঁজাখুঁজি করেছেন তার বাইরের তথ্য।

যার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ নেই কোনো রাজনীতিক শিবিরের। মজার বিষয় হল, এ ধরনের প্রশ্ন উঠে এসেছে আমেরিকার সেই সব জায়গা থেকে যেখানকার বাসিন্দারা ট্রাম্পকে ভোট দিয়ে জিতিয়েছিলেন।

সিঙ্গাপুরের অবস্থান জানতে চেয়েছেন আইওয়া, কেন্টাকি এবং টেনেসির মতো মার্কিন স্টেট থেকে।

তবে পিছিয়ে নেই গত নির্বাচনে ট্রাম্পের বিরোধী প্রার্থী হিলারি ক্লিন্টনের সমর্থকরাও।

কানেক্টিকাট বা কলোরাডোর মতো স্টেট, যেখানকার বাসিন্দাদের অধিকাংশই হিলারিকে ভোট দিয়েছিলেন, তারাও সিঙ্গাপুর কোথায় তা জানতে চেয়ে গুগলে সার্চ করেছেন।