প্রচ্ছদ

নেপালে ফের বিমান দুর্ঘটনা

প্রকাশিত হয়েছে : ১০:০০:৪৩,অপরাহ্ন ১৬ মে ২০১৮ | সংবাদটি ১০ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা বিমানের বিএস-২১১ বিধ্বস্তের ঘটনায় শোক কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ফের নেপালে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে অন্তত দুইজনের প্রাণহানি ঘটেছে।

বুধবার (১৬ মে) নেপালের হুমলার বাহুন খরকা এলাকায় পণ্যবাহী একটি কার্গো বিমান বিধ্বস্ত হয়। নিহত দুইজনই কার্গো বিমানটির পাইলট বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে কাঠমান্ডু পোস্ট।

নেপালের বেসামরিক বিমান কর্তৃপক্ষের উপ-মহাপরিচালক রাজন পোখারেলের বরাত দিয়ে কাঠমান্ডু পোস্ট জানায়, বিধ্বস্ত বিমানটি মাকালু এয়ারের। হুমলার বাহুন খারকা এলাকার সিমিকোট পাসে পণ্যবাহী এই বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিমানটি ১২ হাজার ৮০০ ফুট উপর দিয়ে উড়ছিল। এক ইঞ্জিনবিশিষ্ট বিমানটি হুমলা জেলার সিমিকোটে যাওয়ার উদ্দেশে সুরখেত থেকে উড্ডয়ন করেছিল।

কাঠমান্ডু পোস্ট জানায়, সুরখেত থেকে পণ্যবাহী ওই বিমান স্থানীয় সময় বুধবার সকাল ৬টা ১২ মিনিটে যাত্রা শুরু করে। সকাল ৬টা ৫৫ মিনিটে সিমিকোটে অবতরণের কথা ছিল বিমানটির। পণ্যবাহী এই বিমানের ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পাওয়া যায় স্থানীয় সময় সকাল ১১টার পরে।

বেলা পৌনে ৩টায় একটি হেলিকপ্টারে করে নিহত দুই পাইলটের লাশ ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয় টিচিং হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় বলে জানিয়েছেন উদ্ধারকারী হেলিকপ্টার সিমরিক এয়ারের প্রতিনিধি কমল গৌতম।

এর আগে গত ১২ মার্চ নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশি বেসরকারি বিমানসংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। ইউএস-বাংলার এ বিমান দুর্ঘটনায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৫১ জন নিহত ও ২০ জন আহত হন।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com