সোমবার, ১৬ এপ্রি ২০১৮ ০৯:০৪ ঘণ্টা

ওজনে জিলাপি কম দেয়ায় সংঘর্ষ, আহত ১৫

Share Button

ওজনে জিলাপি কম দেয়ায় সংঘর্ষ, আহত ১৫

হবিগঞ্জের মাধবপুরে মেলায় জিলাপি কেনাকে কেন্দ্র করে ক্রেতা-বিক্রেতার পক্ষের লোকজনদের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। সোমবার বিকালে উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের সুলতানপুর কুণ্ডুপাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রতি বছরের মতো এবারও মাধবপুর উপজেলার শত বছরের ঐতিহ্য সুলতানপুর গ্রামের নিকট কুণ্ডুপাড়ে মেলা বসে। সনাতন ধর্মাবলম্বীরাসহ কয়েক হাজার নারী-পুরুষ এ মেলায় আসেন।

সনাতন ধর্মাবলম্বীরা কুণ্ডুপাড়ে খালে স্নান করে নিজেকে পবিত্র করে। তাদের ধারণা এখানে স্নান করলে তাদের সব পাপ দূর হয়ে যায়।

মেলা উপলক্ষে ওই এলাকায় কয়েকশ দোকানপাট বসে। মেলায় রসুলপুর গ্রামের মধু মিয়ার ছেলে রেনু মিয়া একটি জিলাপির দোকান দেয়। প্রতিবেশী তিনগাঁও গ্রামের মিনু মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া জিলাপি কিনতে যায়। ওজনে কম দেয়া নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। পরে সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় মিনু মিয়া (৫৫), আরমান (২৫), সোহেল (২৭), রৌশন আলীকে (৪০) মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

সংঘর্ষের খবর দুপক্ষের গ্রামের মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে শত শত লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নেয়। তখন মেলায় আগত লোকজনের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে। লোকজন দিগ্বিদিক ছুটাছুটি শুরু করে। অনেকেই মেলা ত্যাগ করেন।

খবর পেয়ে মাধবপুর থানা ও বিভিন্ন ফাঁড়ি থেকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মাধবপুর থানার ওসি চন্দন কুমার চক্রবর্তী সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।