সোমবার, ১৬ এপ্রি ২০১৮ ০৭:০৪ ঘণ্টা

কুমিল্লায় খালেদা জিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নামঞ্জুর

Share Button

কুমিল্লায় খালেদা জিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নামঞ্জুর

কুমিল্লায় যাত্রীবাহী নৈশ কোচে পেট্রলবোমা হামলায় ৮ যাত্রী নিহতের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা ওই জামিন আবেদন করেন। জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জেসমিন আরা বেগম।

মামলার নথি পাওয়া সাপেক্ষে আগামী ২৩ এপ্রিল মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী নাজমুস সাদত বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার অপর আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু বলেন, আমরা খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন করেছিলাম কিন্তু আদালত এ বিষয়ে আগামী ২৩ এপ্রিল শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল ঢাকা থেকে আসা খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়ার উপস্থিতিতে আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদন করেছিলেন। শুনানি শেষে ৫নং আমলি আদালতের বিচারক ও সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাইন বিল্লাহ্ জামিন আবেদন নাকচ করেছিলেন।এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী নাজমুস সাদত জানান, নিম্ন আদালতে জামিন না পেয়ে আমরা জেলা জজ আদালতে জামিন আবেদন করেছি, আদালত বিধি মোতাবেক ওই মামলার নথি তলব করেছে, আগামী ২৩ এপ্রিল জামিনের জন্য আমরা আবেদন করব।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে ২০ দলীয় জোটের টানা অবরোধের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি নৈশ কোচে দুর্বৃত্তরা পেট্রলবোমা ছুড়ে মারে। এতে ওই বাসের ৮ জন যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান, আহত হন ২০ জন।

এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে ৭৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ৬ জন নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। ৭৭ জন আসামির মধ্যে ৩ জন মারা যান, ৫ জনকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়। পরে অধিকতর তদন্ত শেষে গত বছরের ১৬ নভেম্বর খালেদা জিয়াসহ অপর ৬৯ জনের বিরুদ্ধে কুমিল্লা আদালতে তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন চার্জশিট দাখিল করেন।