প্রচ্ছদ

ধর্ষণ থেকে বাঁচতে যা করলেন গৃহবধূ!

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:১৩:৫১,অপরাহ্ন ০৭ এপ্রিল ২০১৮ | সংবাদটি ৮ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

সাটুরিয়ায় এক গৃহবধূ ধর্ষণ থেকে বাঁচতে প্রতিবেশী যুবকের স্পর্শকাতর অঙ্গ কেটে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নগদ টাকা আর মোবাইল ফোন উপহার দেয়ার লোভ দেখিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন মোসলেম উদ্দিন নামে ওই যুবক।

এতে ওই গৃহবধূ সম্মতি জানিয়ে রাতের আঁধারে কৌশলে বাঁশবাগানে নিয়ে ব্লেড দিয়ে স্পর্শকাতর অঙ্গ কেটে দেন। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে।

স্থানীয়রা জানান, মোসলেম উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় এক ব্যক্তির স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। কারণে-অকারণে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন উপহার দেয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করতেন। এরই জের ধরে স্বামী-স্ত্রী কৌশল করে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির পাশের বাঁশবাগানে মোসলেমকে আসতে বলেন তারা। পরে কথামতো আসলে সঙ্গে রাখা ব্লেড দিয়ে মোসলেমের স্পর্শকাতর অঙ্গ কেটে দেন।

এতে রক্তাক্ত হয়ে আর্তচিৎকার করে মোসলেম উদ্দিন। পরে সেখান থেকে পালিয়ে আত্মগোপনে গিয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বড়াইদ ইউপি চেয়ারম্যান মো. হারুন অর রশিদ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক।

এ ব্যাপারে সাটুরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হাসমত উল্যাহ বলেন, এ বিষয়ে কেউ পুলিশকে অবহিত করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com