প্রচ্ছদ

ধর্ষণের ছবি প্রকাশের অভিযোগে ২ যুবক গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:১৮:১৯,অপরাহ্ন ০৩ এপ্রিল ২০১৮ | সংবাদটি ৮ বার পঠিত

সিলেটেরকন্ঠডটকম

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ছবি ধারণ করে মোবাইলে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে পুলিশ ওই দুই যুবকের আদালতে তোলে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত তাদের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার (২ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার মালিতা গ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার তাদেরকে রিমান্ডে নেয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, নরসিংদীর পলাশ উপজেলার মালিতা গ্রামের ফজর আলী ভূঞার ছেলে ফয়সাল মিয়া (২০) ও সুলতানপুর গ্রামের আসাদ মিয়ার ছেলে রণি মিয়া (২০)।

পুলিশ ও ধর্ষিতার পরিবার জানায়, পলাশ উপজেলার মালিতা গ্রামের ওই স্কুলছাত্রীকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে রণি এবং তার বন্ধু ফয়সাল প্রতিনিয়ত উত্ত্যক্ত করতো।

গত ১ এপ্রিল সকালে স্কুলে যাওয়ার সময় ওই স্কুলছাত্রীকে কৌশলে ফয়সালের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নিয়ে রণি তাকে ধর্ষণ করে আর রণির বন্ধু ফয়সাল এই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে। পরে ওই ধর্ষণের দৃশ্য অন্যান্য মোবাইলে ছড়িয়ে দেয়।

এই ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পলাশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকে রণি ও তার বন্ধু ফয়সালকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পলাশ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বোরহান উদ্দিন জানান, স্কুল ছাত্রীকে কৌশলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেছে গ্রেপ্তারকৃতরা। আর তার ভিডিও ছড়িয়ে দিয়ে স্কুলছাত্রীকে জিম্মি করার কৌশল করেছিল তারা। গ্রেপ্তারকৃতদের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com