প্রচ্ছদ

ভুয়া সংবাদের বিরুদ্ধে লড়াই

প্রকাশিত হয়েছে : ৮:৫১:৩১,অপরাহ্ন ০২ এপ্রিল ২০১৮ | সংবাদটি ২ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

মিথ্যা, ভুল ও বিভ্রান্তিকর তথ্যে আমাদের চারপাশ ছেয়ে যাচ্ছে। ভুল তথ্যের জালে আটকা পড়ে আমরা প্রতিদিন মুখোমুখি হচ্ছি নানা ধরনের ক্ষতির। রাজনৈতিক দলগুলো ভুল তথ্য দিয়ে আমাদের বোকা বানাচ্ছে। বিভিন্ন কোম্পানি তাদের বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের ফাঁদে ফেলে ঠকিয়ে যাচ্ছে সাধারণ মানুষকে। ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে হাজারো তরুণকে বিপথগামী করে দেশ-জাতির জন্য হুমকি সৃষ্টি করা হচ্ছে। fake news বা ভুয়া সংবাদ প্রতিরোধ এখন বিশ্বব্যাপী আলোচিত বিষয়।

এমন একটি সময়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ফ্যাক্ট চেকিং (fact checking) এর ধারণা। আজ ২ এপ্রিল পালিত হচ্ছে বিশ্ব ফ্যাক্ট চেকিং দিবস। এ বছর দ্বিতীয়বারের মতো দিবসটি পালিত হচ্ছে। ২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো ‘নিজেকে বোকা বানানোর সুযোগ দেবেন না’ (don’t let yourself get fooled) স্লোগান নিয়ে আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক এর ডাকে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক এর উদ্যোগে Factcheckingday.com নামে একটি ওয়েবসাইটের যাত্রা শুরু হচ্ছে আজ। এর মাধ্যমে মানুষকে ভূয়া সংবাদের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের মিডিয়া লিটারেসি বাড়ানোর কাজ করা হবে।

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, ব্যক্তিবর্গ, গণমাধ্যম এবং সামাজিক মাধ্যমে যেসব তথ্য, বক্তব্য ও ঘটনা আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দেয় সেসবের পেছনের সত্যটা (ফ্যাক্ট) কী, তাতে কোনো তথ্যের বিকৃতি বা সত্যের অপলাপ আছে কিনা- তা যাচাই করে মানুষকে জানানোই ফ্যাক্ট চেকিংয়ের কাজ।

বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও দ্বিতীয়বারের মতো পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট চেকিং দিবস। দেশের প্রথম ফ্যাক্ট চেকিং সংস্থা BD Fact Check দিবসটি উপলক্ষে তাদের ওয়েবসাইটে (www.bdfactcheck.com) ফ্যাক্ট চেকিং সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের লেখা প্রকাশ করেছে। পাশাপাশি ভুয়া তথ্য ছড়ানো রোধে গত দেড় বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে সংস্থাটি।

দিবসটি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক’র পরিচালক অ্যালেক্সিস মানজারলিস এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমাদের আশা আমরা অন্তত একটা দিন আমরা যা পড়ি এবং সামাজিক মাধ্যমে যা শেয়ার করি তার যথার্থতা নিশ্চিত করার জন্য ব্যয় করি।’