প্রচ্ছদ

চীন ভারত নিয়ে ডিএসই-বিএসইসি মুখোমুখি

প্রকাশিত হয়েছে : ১:৪৪:১১,অপরাহ্ন ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | সংবাদটি ৬ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ার বিক্রি ইস্যুতে অনেকটা মুখোমুখি অবস্থানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও তাদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। চীনের স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে ইতিমধ্যে নিজ প্রতিষ্ঠানের ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএসইর বোর্ড। ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশনের (ব্যবস্থাপনা থেকে মালিকানা আলাদাকরণ) শর্ত অনুসারে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে এই শেয়ার বিক্রি করা হচ্ছে। তবে বিষয়টিতে আপত্তি রয়েছে ভারতের। আর ভারতকে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি শেয়ার দিতে আগ্রহী।

উল্লেখ্য, চীনের শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই। গত মঙ্গলবার এ ব্যাপারে প্রাথমিক এবং শনিবারের বোর্ড মিটিংয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই পরিচালনা পর্ষদ। এক্ষেত্রে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারের দাম ২২ টাকা দিচ্ছে চীনা প্রতিষ্ঠান। এতে শেয়ারের মোট মূল্য দাঁড়ায় ৯৯২ কোটি টাকা। এছাড়াও স্টক এক্সচেঞ্জের কারিগরি সহায়তার জন্য আরও ৩০৭ কোটি টাকা সহায়তা দিতে চায় চীন। কিন্তু ভারতীয় প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ অব ইনডিয়া এ শেয়ারের মূল্য চাপের মুখে ফেলে ১৫ টাকায় কিনে নিতে চাচ্ছে। এতে শেয়ারের মোট মূল্য দাঁড়ায় ৬৭৬ কোটি টাকা। ফলে মূল্য পার্থক্য দাঁড়ায় ৩১৬ কোটি টাকা। এরপর কারিগরি সহায়তা তো রয়েছেই। এরপরও ভারতকে শেয়ার দিতে চায় বিএসইসি। বিষয়টি নিয়ে স্টক এক্সচেঞ্জে চরম ক্ষোভ রয়েছে।

সোমবার বিএসইসির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠক সূত্র জানায়, ডিএসইর নেতাদের খায়রুল হোসেন বলেন, ভারতের স্টক এক্সচেঞ্জকে শেয়ার দেয়ার ব্যাপারে সরকারের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত রয়েছে। বিষয়টি কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায় তা জানতে চান তিনি। এ সময়ে সুনির্দিষ্টভাবে সরকারের কিছু নির্দেশনার কথা জানান তিনি। তবে আমন্ত্রিত মেম্বাররা বলেন, এটি সম্ভব নয়। বিএসইসির চেয়ারম্যানকে তারা বলেন, আপনি দেশ এবং স্টক এক্সচেঞ্জের মেম্বারদের বঞ্চিত করবেন না। স্টক এক্সচেঞ্জের মেম্বাররা কোনোভাবেই এই দামে ভারতকে শেয়ার দিতে চায় না। বিষয়টি আপনি বিবেচনা করবেন। তবে স্টক এক্সচেঞ্জের মেম্বারদের বঞ্চিত করা হবে না বলে শেষ পর্যন্ত আশ্বাস দিয়েছেন বিএসইসির চেয়ারম্যান।

এদিকে চীনের দুই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে শেয়ার বিক্রি বন্ধ করতে রোববার ঢাকায় এসেছেন ভারতের অন্যতম শেয়ারবাজার ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) বিক্রম লিমা।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com