প্রচ্ছদ

শিবগঞ্জে অর্ধশতাধিক বোমা উদ্ধার

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:৫৮:৫৮,অপরাহ্ন ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | সংবাদটি ৩ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে পুলিশ ও বিজিবির পৃথক অভিযানে ৫৩টি বিস্ফোরকদ্রব্য উদ্ধার করেছে। উপজেলার ফতেপুর সীমান্ত এলাকা থেকে ৪২টি তাজা ককটলে উদ্ধার করে বিজিবি। বালতিতে রক্ষিত ককটেলগুলো বহন করে নিয়ে যাওযার সময় বিজিবি সদস্যদের এ অভিযানে ককটেল বহনকারী বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে ককটেল ফাটিয়ে পালিয়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি এবং হতাহত হয়নি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসএম আবুল এহসান জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ফতেপুর সীমান্তের পিলার নম্বর ১০/২ এস থেকে আনুমানিক ৯০০ গজ বাংলাদেশের ভেতরে সওড়াপাড়া পদ্মার চর এলাকায় বালতি নিয়ে দুজনসহ প্রায় ১৫ জন লোক নদী পার হওয়ার সময় বিজিবির ফতেপুর সীমান্ত ফাঁড়ির একটি টহলদল তাদের ধাওয়া করে। এ সময় বালতি ফেলে দুজন বিজিবির ওপর লক্ষ্য করে ককটলে ফাটিয়ে পালিয়ে যায়। এদের একজন সওড়াপাড়া পদ্মার চরে এবং অপরজন লক্ষ্মীচর এলাকায় পালিয়ে গেলে বিজিবি সদস্যরা লক্ষ্মীচরে অভিযান চালিয়ে ৪২টি তাজা ককটলে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় উদ্ধারকৃত ককটেলগুলো শিবগঞ্জ থানায় জমা দেয়া হয়েছে এবং দুজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ১৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের টোকনা গ্রামের মুখলেসের বাড়ির সামনে থেকে একটি ব্যাগ থেকে ১১টি পেট্রলবোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মনাকষা ইউনিয়নের টোকনা গ্রামের মুখলেশের বাড়ির পার্শ্বে একটি ধানভেজা হাউজে প্রথমে মুখলেশের স্ত্রী নাজিরা বেগম একটি ব্যাগে ১১টি পেট্রলবোমা দেখতে পান। এ সময় মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররমকে বিষয়টি অবগত করলে কয়েকজন গ্রামপুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে থানা পুলিশে খবর দেয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এসআই শ্যামলের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১১টি পেট্রলবোমা উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে একটি লাল রংয়ের ব্যাগ থেকে ১১টি বিস্ফোরকদ্রব্য উদ্ধার করে পানিতে ভিজিয়ে নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। তবে প্রকৃত পেট্রলবোমা কিনা তা খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com